জলা ভরাটের প্রতিবাদ করায় হত্যা, বালির পরিবেশবিদ তপন দত্ত খুনে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ আদালতের

বালির পরিবেশবিদ মারা যান ২০১১ সালে। তিনি জলাভূমি ভরাট করার প্রতিবাদ করেছিলেন, এর পরেই তাঁকে খুন হতে হয় বলে অভিযোগ। এই মামলাতেই এবার সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। বিচারপতি রাজশেখর মান্থা এই নির্দেশ দিয়েছেন। যেখানে কিনা এই মামলায় তদন্ত প্রক্রিয়া ও বিচারপ্রক্রিয়া শেষ হয়ে গেছে, সেখানে নজিরবিহীনভাবে এই মামলাকে কেন্দ্র করে আবার তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হল।

অভিযোগের ভিত্তিতে জানা গেছে যে, জলাজমি ভরাট করার প্রতিবাদ করার কারণে বালির পরিবেশবিদ তথা তৎকালীন তৃণমূল কর্মী তপন দত্ত ২০১১ সালে ৬ই মে তারিখে খুন হয়েছিলেন। এই মামলাকে কেন্দ্র করে অভিযোগের আঙুল যায় আবার তৃণমূল নেতা-কর্মীদের দিকে। রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ রায়-সহ ১৩ জন তৃণমূল নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে দায়ের হয় এফআইআর। এটি দায়ের করেছিলেন মৃত তপন দত্তের স্ত্রী প্রতিমা দত্ত।

এই মামলাকে কেন্দ্র করে চার্জশিট পেশ হয় ২০১১ সালের ৩০শে আগস্ট তারিখে। এই প্রথম চার্জশিটে রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ দত্তের নাম থাকলেও ওই সালেই ২৬শে সেপ্টেম্বর তারিখে দ্বিতীয় চার্জশিটে ৯ জনের নাম কোনো কারণ উল্লেখ না করে বাদ দেওয়া হয়। এরপরেই নিম্ন আদালতের তরফে আবার ৫ জন বেকসুর খালাস হয় যায়। এরপরে, ২০১৭ সালে কলকাতা হাইকোর্ট নিম্ন আদালতের নির্দেশ খারিজ করে দিলে সুপ্রিম কোর্টের দারস্থ হয় অভিযুক্তরা। এই মামলায় সুপ্রিম কোর্টও কলকাতা হাইকোর্টের রায়ের বহাল রাখে। এরপরে, চলতি সপ্তাহ বুধবারে এই মামলার শুনানি হলে বিচারপতি সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.