সিপাহি বিদ্রোহকেই ভারতের প্রথম স্বাধীনতা যুদ্ধ, মহাবিদ্রোহ, ভারতীয় বিদ্রোহ, ১৮৫৭ সালের বিদ্রোহ ও ১৮৫৮ সালের গণ-অভ্যুত্থান নামেও অভিহিত করা হয়ে থাকে। ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির অপশাসন, একনায়কতান্ত্রিক ও বিমাতৃসুলভ আচরনের বিরুদ্ধাচারে শুরু এই বিদ্রোহ দমন করা হয় নির্মমভাবে। বহু নিরপরাধ নরনারী, শিশু বৃদ্ধদের নির্বিচারে হত্যা করা হয়। যার মধ্যে আলেমRead More →

উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরী (১৮৬৩-১৯১৫) প্রখ্যাত শিশুসাহিত্যিক, চিত্রশিল্পী, বাংলা মুদ্রণশিল্পের অন্যতম পথিকৃৎ। ১৮৬৩ সালের ১০ মে ময়মনসিংহ জেলার মসুয়া গ্রামে উপেন্দ্রকিশোর জন্মগ্রহণ করেন। পিতামাতার আট সন্তানের মধ্যে উপেন্দ্র ছিলেন তৃতীয়। তাঁর পিতৃদত্ত নাম ছিল কামদারঞ্জন। পাঁচ বছর বয়সের সময় তাঁর পিতা কালীনাথ রায় ওরফে শ্যামসুন্দর মুন্সীর কাছ থেকে নিকট আত্মীয় ময়মনসিংহের জমিদারRead More →

শান্তিদেব ঘোষ (৭ মে ১৯১০ – ১ ডিসেম্বর ১৯৯৯) ছিলেন একজন ভারতীয় বাঙালি লেখক, কণ্ঠশিল্পী, অভিনেতা, নৃত্যশিল্পী ও রবীন্দ্রসংগীত-বিশারদ। তিনি ছিলেন শান্তিনিকেতনের আশ্রমিক। কৈশোরে তিনি রবীন্দ্রনাথের ঠাকুরের কাছে গান শিখতে শুরু করেন। রবীন্দ্রনাথের সঙ্গে তিনি শ্রীলঙ্কা, জাভা ও বালিতে গিয়েও সংগীত ও নৃত্যশিক্ষা গ্রহণ করেন। রবীন্দ্রনাথের উৎসাহে তিনি কবির লেখাRead More →

২৮ মার্চ ১৮৯৭ দক্ষিণ কলকাতায় কলেরা দেখা দিয়েছে। ১২ জুন ১৮৯৭ বাংলার সর্বত্র প্রবল ভূমিকম্প— মৃত ১৩৫ জন। কলকাতায় স্কুলের ছাত্রীরা ভয়ে রাস্তায় বেরিয়ে পড়ে। ৩০ জুন টালা অঞ্চলে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা, ১৯ জন নিহত ও আহত। ২০ অগস্ট পিজি হাসপাতালে স্যর রোনাল্ড রস আবিষ্কার করলেন ম্যালেরিয়া রোগের কারণ এনোফিলিস মশা।Read More →

সাহিত্যিকআশুতোষ মুখোপাধ্যায় (জন্মঃ- ৭ সেপ্টেম্বর, ১৯২০ – মৃত্যুঃ- ৪ মে, ১৯৮৯) জন্ম ঢাকা শহরে। পিতা বিদ্যালয় পরিদর্শক পরেশ চন্দ্র মুখোপাধ্যায় এবং মাতা তরুবালা দেবী। পিতার সরকারী চাকরির কারণে তত্কালীন পশ্চিম ও উত্তরবাংলার অনেক স্কুল-কলেজে পড়াশুনা করেছিলেন। স্নাতক হয়েছেন হুগলী মহসিন কলেজ থেকে । পিতার সরকারী চাকরির কারণে বহু উচ্চ ওRead More →

প্রেমেন্দ্র মিত্র (১৯০৪-১৯৮৮) ছিলেন একাধারে কবি, কথাসাহিত্যিক, সাংবাদিক, সম্পাদক। জন্ম ১৯০৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসে কাশিতে। পৈতৃক নিবাস দক্ষিণ চবিবশ পরগণার বৈকুণ্ঠপুরে। পিতা জ্ঞানেন্দ্রনাথ মিত্র ভারতীয় রেলওয়াতে চাকরি করতেন। মাতার নাম সুহাসিনী দেবী। প্রেমেন্দ্র মিত্র কলকাতার সাউথ সাবার্বন স্কুল থেকে ম্যাট্রিক (১৯২০) পাস করে সাহিত্য-সাধনায় মনোযোগী হয়ে ওঠেন। ১৯২৩ সালে প্রবাসীতেRead More →

মান্না দে (জন্ম: মে ১, ১৯১৯; মৃত্যু: ২৪ অক্টোবর, ২০১৩ ) ছিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের অন্যতম সেরা সংগীত শিল্পী এবং সুরকারদের একজন। হিন্দি, বাংলা, মারাঠি, গুজরাটিসহ প্রায় ২৪টি ভাষায় তিনি ষাট বছরেরও অধিক সময় সংগীত চর্চা করেছিলেন। আলিপুরদুয়ারে তাঁর গুণগ্রাহী দেবপ্রসাদ দাস নিজের বাড়িতে মান্না দে সংগ্রহশালা তৈরি করেছেন। বৈচিত্র্যের বিচারেRead More →

ধুন্ডীরাজ গোবিন্দ ফালকে, যিনি দাদাসাহেব ফালকে নামে অধিক পরিচিত, (৩০শে এপ্রিল, ১৮৭০ – ১৬ই ফেব্রুয়ারি, ১৯৪৪) একজন ভারতীয় চলচ্চিত্রে পরিচালক ও প্রযোজক ছিলেন। তাকে ভারতীয় চলচ্চিত্রের জনক হিসেবে গণ্য করা হয়।তিনি ১৯১৩ সালে রাজা হরিশচন্দ্র চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেন যা ছিল ভারতের প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য নির্বাক চলচ্চিত্র। এরপর তিনি প্রায় চব্বিশ বছরRead More →

নারীশক্তি …… 🏵️🏵️ ছোট্ট মেয়েটা তখন প্রাইমারি সেকশনে পড়ে। একদিন স্কুলে এলেন ইন্সপেক্টর। ঘুরতে ঘুরতে ওর ক্লাসে গিয়ে ছাত্রছাত্রীদের জিজ্ঞেস করলেন, বড় হয়ে কি হতে চাও ? প্রায় সবাই যখন জবাব দিচ্ছে ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ার সায়েন্টিস্ট, তখনই রিনরিনে গলায় মেয়েটি জবাব দিলো আমি সরকারি অফিসার হতে চাই ! বিস্মিত পরিদর্শক খোঁজRead More →

স্যার যদুনাথ সরকার-এর জীবন হ’ল তপস্যা ও সাধনার (ন‍্যায়নিষ্ঠা এবং সহযোগিতার)। পুরানো প্রবাদ অনুযায়ী “সরল জীবনযাত্রা এবং উচ্চ চিন্তাভাবনা, তাঁর মধ্যে প্রকাশিত হয়ে তাঁর জীবনকে পরিপূর্ণতা দিয়েছিল”। জীবনের দুর্দশাগুলি যতই দুর্গম হোক না কেন, তাঁকে ভয় দেখাতে পারেনি, কোনও দুর্ভাগ্যই তাকে হতাশ করতে পারেনি​ এবং কোনও প্রলোভন তাকে বিপথগামী করতেRead More →