Kali Poster Row: ‘গভীরভাবে অনুতপ্ত’, ভারতের আপত্তির পর ‘কালী’ বিতর্কে ক্ষমা চাইল কানাডার মিউজিয়াম

মা কালীকে নিয়ে ‘প্ররোচনামূলক’ পোস্টার সরানোর দাবি জানিয়ে আগেই কানাডার দ্বারস্থ হয়েছিল ভারত। এবার এই গোটা বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা ‘আগা খান মিউজিয়াম’ ক্ষমা প্রার্থনা করল। ডকুমেন্ট্রি ফিল্মমেকার লীনা মানিমেকালাইয়ের ‘কালী’ সিনেমার ‘অবমাননাকর’ পোস্টার নিয়ে বিতর্কের মধ্যে ‘আগা খান মিউজিয়াম’ একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলল, ‘আমরা গভীরভাবে অনুতপ্ত যে ‘আন্ডার দ্য টেন্টের’ ১৮টি ভিডিয়োর একটি এবং সেই ভিডিয়োর সাথে থাকা সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টগুলি অসাবধানতাবশত হিন্দু সম্প্রদায়ের সদস্যদের মনে আঘান করেছে৷’ উল্লেখ্য, কানাডার টরোন্টোতে অবস্থিত এই ‘আগা খান মিউজিয়ামে’ই প্রদর্শিত হয়েছিল লীনা মানিমেকালাইয়ের ‘কালী’ সিনেমার পোস্টারটি।

এর আগে সোমবার কানাডার ভারতীয় দূতাবাসের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলা হয়েছিল, ‘আন্ডার দ্য টেন্ট কর্মসূচির আওতায় টরেন্টোর আগা খান মিউজিয়ামে প্রদর্শিত একটি সিনেমার পোস্টারে হিন্দু দেবতাদের অবমাননা হয়েছে বলে অভিযোগ। এই নিয়ে কানাডার হিন্দু সম্প্রদায়ের ব্যক্তিদের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়েছি আমরা। এরকম প্ররোচনামূলক কোনও বিষয়বস্তু প্রত্যাহারের জন্য কানাডার কর্তৃপক্ষ এবং আয়োজকদের কাছে আর্জি জানাচ্ছি আমরা।’

উল্লেখ্য, লীনা মানিমেকালাইয়ের নির্দেশিত সিনেমার পোস্টারে মা কালীর বেশে এক মহিলাকে দেখা যাচ্ছে। সেই পোস্টার নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। নেটিজেনদের একাংশ লীনার বিরুদ্ধে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগ। পরিচালককে গ্রেফতারির দাবিও ওঠে। ইতিমধ্যে দিল্লি এবং উত্তরপ্রদেশে তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়েছে। যদিও রোষের মুখে পড়ে লীনা বলেছেন, ‘টরেন্টোর রাস্তায় মা কালী আবির্ভূত হওয়া নিয়ে আমার সিনেমা। যদি আপনি এই সিনেমাটি দেখেন তাহলে লীনা মানিমেকালাইকে গ্রেফতার করার দাবি জানাবেন না। বলবেন, লীনা তোমায় আমরা ভালোবাসি। আমার কালী কথা বলবেন বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.