যাদবপুরে অনুপম হাজরার স্যার্জিক্যাল স্ট্রাইকে শতাধিক কর্মী সমর্থক সিপিএম ছেড়ে নাম লেখালেন বিজেপিতে

ভোট যতই এগিয়ে আসছে রাজ্যে পদ্ম শিবিরের শক্তি ততই বৃদ্ধি পাচ্ছে। উত্তরবঙ্গ হোক আর দক্ষিণ বঙ্গ চারিদিকেই ফুটে উঠছে পদ্ম। আর এরাজ্য থেকে যতটা বেশি সম্ভব আসন তুলে নেওয়ার চেষ্টা করছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব।

এবার যাদবপুরে ত্রিমুখী লড়াই হতে চলেছে। তৃণমূলের অভিনেত্রী প্রার্থী মিমির যোগ্য প্রতিযোগী হয়ে উঠেছেন বিজেপির প্রার্থী অনুপম হাজরা। আরেকদিকে বাম শিবিরের প্রার্থীও বেশ মজবুত। কিন্তু সেই মজবুতি দেখানোর আগেই বড়সড় ঝটকা খেলো বাম শিবির।

গতকাল সোনারপুর (উত্তর) বিধানসভা কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত একটি কর্মীসভায় কয়েকশ কর্মী সমর্থক দল ছেড়ে নাম লেখান বিজেপিতে। ওই কর্মী সভায় উপস্থিত ছিলেন বিজেপির প্রার্থী ডঃ অনুপম হাজরা। বাম দল ছেড়ে আসা কর্মীদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন তিনি নিজেই।

ভোটের আগে সিপিএম এর এই ভাঙন বেশ চাপে ফেলতে পারে বাম দলকে। বাম ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া কর্মীরা জানান, ‘কেন্দ্রের রূপায়িত নানা জনমোহিনী প্রকল্পগুলোর মাধ্যমে উপকৃৃৃত হচ্ছেন দেশের কয়েক কোটি নাগরিক। এছাড়া দেশে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে। সেইসব উন্নয়নমূলক কাজে শামিল হতেই বিজেপিতে যোগদান করেছি আমরা’।

কয়েকশ সিপিএম কর্মীর দলবদল নিয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত গেরুয়া শিবির। সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার প্রসঙ্গে ডঃ অনুপম হাজরা বলেন, ‘তৃণমূলের অপশাসন দেখছেন রাজ্যবাসী। অন্যদিকে সিপিএম ৩৪ বছর ক্ষমতায় থেকেও রাজ্যে উন্নয়ন করেনি। আর বর্তমানে এই দল অস্তিত্বহীনতায় ভুগছে। তাই বিকল্প শক্তি হিসেবে মানুষ বিজেপিকে চাইছেন। সেজন্য  দলে দলে যোগ দিচ্ছেন বিজেপিতে”।


Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.