Tejas Fighter: মালয়েশিয়াকে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ১৮ তেজস যুদ্ধবিমান বিক্রি করবে ভারত

মালয়েশিয়াকে দেশীয় প্রযুক্তিতে বানানো ‘তেজস’ যুদ্ধবিমান বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার। শুক্রবার এ কথা জানানো হল কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে। ইতিমধ্যেই এই একক-ইঞ্জিনের যুদ্ধবিমানে আগ্রহ দেখিয়েছে আর্জেন্টিনা, অস্ট্রেলিয়া, মিশর, আমেরিকা, ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপিন্স।

সামরিক সরঞ্জামে এতদিন ভারত অনেকটাই বিদেশ-নির্ভর ছিল। সম্প্রতিই এই প্রবণতা কাটানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকার। এরই পাশাপাশি, নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি অস্ত্র ও প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম বিদেশে রফতানিতেও জোর দেওয়া হচ্ছে। তারই সুফল এই তেজস যুদ্ধবিমান বিক্রির চুক্তি। প্রায় ৬০০ কোটি আমেরিকান ডলারের চুক্তিতে গত বছর রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা হিন্দুস্তান অ্যারোনটিকস লিমিটেডকে (হ্যাল) ৮৩টি তেজস তৈরির বরাত দেওয়া হয়েছে। ২০২৩ সালের মধ্যে তা তৈরি হয়ে যাবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

শুক্রবার কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়, গত বছরেই মালয়েশিয়ার বায়ুসেনা ১৮টি তেজস বিমান কিনতে চেয়েছিল ভারতের থেকে। তার ভিত্তিতেই ভারতে তৈরি এই যুদ্ধ বিমান মালয়েশিয়াকে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

খুব হালকা ওজনের হলেও তেজস যুদ্ধবিমান অত্যন্ত শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র বয়ে নিয়ে যেতে পারে। শত্রুপক্ষের নজরের বাইরে থাকা অবস্থাতেও নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুর দিকে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়তে পারে তেজস। প্রয়োজনে বিপক্ষের যুদ্ধবিমানকেও ধ্বংস করতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.