সবার সামনে প্রেমে লজ্জা! সন্ধ্যে নামলেই গোটা গ্রামে লোডশেডিং করে দিতেন ইলেকট্রিক মিস্ত্রি প্রেমিক

আজব প্রেম কি গজব কাহিনী’, হ্যাঁ বিহারের এই প্রেমের খবরটি শুনলে এমনই বলবেন হয়তো। বিহারের এক গ্রামে এক যুবক শুধুমাত্র রাতের অন্ধকারেই নয়, একদম বিদ্যুতের অনুপস্থিতিতে নিজের প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে চাইতেন। এইজন্য তিনি যখনই তার প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে যেতেন, প্রেমিকার গ্রামের সেই বিদ্যুতের সংযোগই কেটে দিতেন।

ঘটনাটি ঘটেছে বিহারের পূর্ণিয়া জেলায়র গণেশপুর গ্রামে। এই একই গ্রামে বাস করতেন দুই প্রেমিক-প্রেমিকা। এদিকে, প্রেমিক পেশায় আবার ইলেক্ট্রিশিয়ানও। এইসবের মাঝে দুজনে দেখা করার থাকলেই প্রেমিক ইলেক্ট্রিশিয়ান গ্রামে লোডশেডিং। এই লোডশেডিং-এর পরিমাণ দিনের পর দিন আবার বাড়তে থাকে। যার ফলে, এই গ্রীষ্মের দাবদাহের মাঝে গ্রামবাসীরা ক্ষেপে গেছিল।

এদিকে, বাবার লোডশেডিং হওয়ায় কারণ খুঁজতে শুরু করেন গ্রামবাসীরা। তারপরেই, জানতে পারা যায় আসল কাহিনী। ওই প্রেমিক যুগলকে খুঁজে পাওয়া যায় একটি স্কুলে। এই অবস্থায় প্রেমিক ইলেক্ট্রিশিয়ানের দাবি, রাতের অন্ধকারের লোডশেডিং-এর মাঝেই তাঁর প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে ভালো লাগে, আর এইজন্যই সে ইচ্ছাকৃতভাবে লোডশেডিং করাতো গ্রামে। যদিও, ধরা পড়ার পরে দুইজনেই গ্রামবাসীদের হাতে মার খায়। আবার, গ্রামবাসীরা দুজনের নামে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি, তাই দুজনের নাম প্রকাশ্যে আসেনি। তবে, তাঁরা রীতিমতো ধরে বেঁধে দুজনের বিয়ে দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.