সময়ে ভ্যাকসিন আসায় প্রাণ বেঁচেছে ৪২ লক্ষ ভারতীয়র, প্রকাশ সমীক্ষায়

সম্প্রতি, লন্ডনের একটি গবেষণা পত্রিকায় করোনা সংক্রান্ত বিষয়ে কিছু প্রকাশিত হয়েছে। সেই গবেষণা পত্রিকায় জানানো হয়েছে, ভারতে প্রায় ৪২ লক্ষ করোনা রোগীকে মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচানো সম্ভব হয়েছে, শুধুমাত্র টিকাকরণের জন্য। মহামারী চলাকালীন সময়ে ভারতে মৃত্যুর হার দেখে অনুমানের ভিত্তিতে এই সংখ্যাটি পাওয়া গিয়েছে বলে জানানো হচ্ছে।

লন্ডনের দ্যা ল্যানসেট ইনফেকশাস ডিজিজেস জার্নালে বলা হয়েছে, গত ৮ ই ডিসেম্বরের ২০২০ সাল থেকে পরের বছরের ৮ ই ডিসেম্বর পর্যন্ত ভারতে প্রায় ৪২ লক্ষ করোনা রোগীর মৃত্যুকে আটকানো সম্ভব হয়েছে। এই প্রসঙ্গে ইম্পেরিয়াল কলেজ অফ লন্ডনের গবেষক অলিভার ওয়াটসন জানিয়েছেন, ”আমরা মনে করছি যে, ভারতে এক বছরে ৪২, ১০, ০০০টি কোভিড-মৃত্যু রোধ করা গিয়েছে। এটা আমাদের অনুমানমাত্র। এই সংখ্যাটি ৩৬, ৬৫, ০০০ থেকে ৪৩, ৭০, ০০০-এর মধ্যে হতে পারে।” তিনি আরও বলেন, ”টিকাদানের ফলে মৃত্যু ঠেকাতে গোটা বিশ্বের মতো ভারতেও প্রভাব পড়েছে। বিশেষত ভারতের মতো দেশে, যেখানে প্রথম ডেল্টার রূপের প্রভাবে সংক্রমণ ছড়িয়েছে, সেখানে টিকা কার্যকর হয়েছে।”

গবেষকদের অনুমান, অতিমারি চলাকালীন সময়ে ভারতের মৃত্যু হতে পারত প্রায় ৫১, ৬০, ০০০ জন রোগীর। এদিকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে, ভারতে এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৫, ২৪, ৯৪১ জনের।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.