‘কাজের অধিকার থেকে জীবনের মূল্য বেশি’, বাজির নিষেধাজ্ঞা নিয়ে মত সুপ্রিম কোর্টের

সম্প্রতি বাজি নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত মামলা দায়ের হয়েছিল সুপ্রিম কোর্টে। সেই মামলার প্রেক্ষিতেই সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দিল যে কাজের অধিকার থেকে জীবনের মূল্য বেশি। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট বাজি প্রস্তুতকারকদের বলে, ২০১৮ সালের আদালতের রায়ে পটকা তৈরি ও বিক্রির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার জেরে যেসব কর্মীদের চাকরি গিয়েছে, তাদের কাজ করার অধিকারের চেয়ে নিরীহ নাগরিকদের জীবনের অধিকার বেশি।

বাজি তৈরির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার নির্দেশিকার বিরোধিতা করে একটি পিটিশন ফাইল করেন বাজি প্রস্তুতকারক কারখানার মালিকরা। মামলাকারীদের পক্ষের আইনজীবী দিবাপলীর আগে লক্ষাধিক মানুষের কর্মসংস্থানের উল্লেখ করেন।

তবে এই বিষয়ে শীর্ষ আদালতের বিচারপতি এমআর শাহ এবং এএস বোপান্নার ডিভিশন বেঞ্চের তরফে বলা হয়, ‘কর্মসংস্থানের অধিকারের আড়ালে আমরা কয়েকজনকে নাগরিকদের জীবন নিয়ে খেলতে দিতে পারি না। আমাদের কর্মসংস্থানের অধিকার এবং নাগরিকদের জীবন যাপনের অধিকারের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে। কিন্তু আমাদের প্রধান ফোকাস হচ্ছে বাজি ব্যবহারের কারণে ভুক্তভোগী নিরীহ নাগরিকদের জীবনের অধিকার রক্ষা করা।’

আদালতের তরফে এটা নোট করা হয় যে নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও উত্সব বা রাজনৈতিক মিছিলে বাজি ব্যবহার থামেনি। শীর্ষ আদালতের পর্যবেক্ষণ, বাজির বিষয়ে জনসাধারণকে সচেতন করতে হবে। অনেক ক্ষেত্রেই ছোট ছোট বাজি কিনে তা জুড়ে দিয়ে ফাটানো হয়। তা বন্ধ করতে হবে বলেও জানানো হয় শীর্ষ আদালতের তরফে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.