মমতা ব্যানার্জীকে সমর্থন করেনি ইস্কন, নিজেদের রাজনৈতিক চরিতার্থ সফল করার জন্য ভুয়ো খবর ছড়াচ্ছে তৃণমূল

দৈনিক সংবাদ মাধ্যম সংবাদ প্রতিদিন তৃণমূলের জন সমর্থন বাড়ানোর জন্য ইস্কনের নামে ভুয়ো খবর ছড়িয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা চালাচ্ছে।একটি প্রতিবেদনে তাঁরা লেখে, ‘আসন্ন নির্বাচনে মমতা ব্যানার্জীকে সমর্থন করছে ইস্কন”। সংবাদ প্রতিদিনের এই প্রতিবেদনকে সম্পূর্ণ ভুয়ো বলে দাবি করেছে ইস্কনের স্বামী রুপানন্দ ব্রহ্মচারী ।


এই সেই ফেক ভিডিও যেখানে, ভোটে মমতাকে সমর্থনের আবেদন ইসকনের

ইস্কনের সদস্য স্বামী রুপানন্দ ব্রহ্মচারী ফেসবুকে লাইভে এসে এই ঘটনার তথ্য সবার সামনে রাখেন। তিনি বলেন, ‘ইস্কন বিশ্ব জুড়ে হিন্দু ধর্ম প্রচারের কাজ করে। ইস্কন কখনো কোন রাজনৈতিক দলের হয়ে কাজ করেনা।” এমনকি উনি এও বলেন যে, ‘যেই মমতা ব্যানার্জী মহরম আর রথযাত্রা একসাথে পড়েছে বলে, রথযাত্রার চিরাচরিত রাস্তা পরিবর্তন করেছে, যেই মমতা ব্যানার্জী জুতো পড়ে রথের দড়ি টেনেছে। সেই মমতা ব্যানার্জীকে ইস্কন কোনদিনও সমর্থন করেনা।”


স্বামী রুপানন্দ ব্রহ্মচারী ফেসবুকে লাইভে বলেন – মমতা ব্যানার্জীকে ইস্কন কোনদিনও সমর্থন করেনা

উনি মমতা ব্যানার্জীর উপর অভিযোগ করে বলেন, মমতা ব্যানার্জী হিজাব পড়েন। উনি হিন্দু ধর্ম সমন্ধ্যে অবগত না। তাই ওনাকে ইস্কন থেকে সমর্থন করার কোন প্রশ্নই আসেনা। উনি আরও বলেন, এর আগে মমতা ব্যানার্জী ইস্কনের প্রধান শাখা মায়াপুরে এসেছিলেন। তিনি সেদিন প্রভুপাদের দর্শনের জন্য আসেন নি, তিনি এসেছিলেন ফোর্ড কোম্পানির মালিক অ্যালফ্রেড ফোর্ড এর কাছে রাজ্যে বিনিয়োগ করার প্রস্তাব নিয়ে এসেছিলেন।

স্বামী রুপানন্দ ব্রহ্মচারী দেশের তথা রাজ্যের সমস্ত হিন্দুদের হাতজোড় করে অনুরোধ করে বলেছেন যে, তাঁরা যেন কোনোরকম ভুয়ো খবরে কর্ণপাত না করে। এবং তাঁরা যেন ভুয়ো খবরে কান দিয়ে ইস্কনকে দোষারোপ না করে। তাঁরা দেশের যেকোন দলকে ভোট দিতে পারে, কিন্তু ভুয়ো খবর আর ইস্কনের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে যেন সামিল না হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.