কমিশনের দায়িত্ব ছিল মমতা ব্যানার্জিকে জেতানো, সেটাই হয়েছে: দিলীপ ঘোষ

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জেতাতে ভবানীপুরে পক্ষপাতমূলক আচরণ করেছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ জানালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শুক্রবার সকালে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দিলীপবাবু বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জেতানোর দায়িত্ব নিয়ে নিয়েছিল কমিশন।

এদিন দিলীপ ঘোষকে বলতে শোনা যায়, ‘কমিশন যদি ওখানে ভোটে জেতানোর জন্য নির্বাচন করে স্বাভাবিকভাবে অন্য কোনও অভিযোগ নেবেই না ওরা। আমার ওপর আক্রমণ হয়েছে, অর্জুন সিংয়ের ওপরে আক্রমণ হয়েছে। এমনকী আমাদের প্রদেশ সভাপতিতে কোলে তুলে নিয়ে গিয়েছে পুলিশ। আমার ওপর ২৫ জন মিলে আক্রমণ করল, তাদের বিরুদ্ধে কোনও মামলা হল না। কয়েকজনকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে গিয়ে ছেড়ে দেওয়া হল। আর আমাদের একজন ভুয়ো ধরল, তাঁকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। আমাদের প্রদেশ সভাপতিকে পুলিশ তুলে নিয়ে যাচ্ছে। এতে তো বোঝাই যাচ্ছে কার জন্য কে ভোট করছে। এগুলো নির্বাচন কমিশন দেখে না?’ট্রেন্ডিং স্টোরিজ

সরাসরি কমিশনকে কাঠগড়ায় তুলে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘কমিশনের দায়িত্ব ছিল মমতা ব্যানার্জিকে জেতানো, বিজেপিকে আটকানো। সেটাই হয়েছে। নইলে আমরা যখন গেলাম, কোথাও কোনও পুলিশ নেই। কোথাও কোনও নিরাপত্তা নেই। ভয় দেখানো হচ্ছে, ধমকানো হচ্ছে। পাড়াছাড়া করে দেওয়া হচ্ছে। কোথাও নির্বাচন কমিশনও কিছু করেনি, পুলিশও কিছু করেনি’।

বলে রাখি, বৃহস্পতিবার ভবানীপুর উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণে তৃণমূলের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ তুললেও গ্রাহ্য করেনি নির্বাচন কমিশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.