এরাজ্যে লোকসভা নির্বাচনে (Lok Sabha Election) প্রথম দফা থেকেই হিংসার ছবি ভেসে উঠছে। মঙ্গলবার অমিত শাহ (Amit Shah) এর রোড শোয়ে হওয়া হিংসা নিয়ে রাজনীতি এখনো থামেনি, আর এরপরেও বৃহস্পতিবার রাতে বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের (Mukul Roy) গাড়িতে হামলার খবর এসেছে। শোনা যাচ্ছে দমদম লোকসভা কেন্দ্রের নাগেরবাজারে বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের উপর রাত ১১ টা নাগাদ হামলা করে তৃণমূলের (TMC) দুষ্কৃতীরা। ভাঙচুর চালানো হয় ওনার গাড়িতে।

বিজেপি এই ঘটনার পিছনে তৃণমূলের ষড়যন্ত্র আছে বলে জানায়। আরেকদিকে তৃণমূলের উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক তাঁদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দের কারণে এই ঘটনা ঘটেছে।” বিজেপির নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের দাবি হাস্যকর বলে উড়িয়ে দেন। তিনি বলেন, ‘তৃণমূল নিজেদের হার নিশ্চিত জেনেই বারবার বিজেপির উপরে আক্রমণ করছে।”

এরাজ্যে নির্বাচনে হওয়া হিংসার ঘটনা দেখে নির্বাচন কমিশন সপ্তম তথা অন্তিম দফার নির্বাচনের জন্য ৮০০ কোম্পানির আধা সেনা মোতায়েন করেছে। শেষ দফার ভোটে পশ্চিমবঙ্গের সাতটি আসনে ভোটদান প্রক্রিয়া চলবে। পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনে লাগাতার হিংসা হওয়ার জন্য বিজেপির নেতারা সুষ্ঠ এবং নিরপেক্ষ নির্বাচন করাতে নির্বাচন কমিশনের

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.