রবিবার শেষ হল ভোটপর্ব। তারপরেই বেরিয়েছে এক্সিট পোলের ফলাফল। তাতে স্পষ্ট যে, বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট বিপুল গরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসছে ফের। সেই ইঙ্গিত পেয়ে সোমবার হু হু করে বেড়েছে সেনসেক্স আর নিফটি। দিনের শুরুতে যখন বাজার খোলে, তখনই সেনসেক্স ছিল ৭০০ পয়েন্ট ওপরে। তার সূচক ছিল ৩৮,৭০১. ১৮ এর ঘরে। পরে সূচক আরও উঠে পৌঁছে যায় ৩৮,৮৯২. ৮৯ এর ঘরে। অর্থাৎ সূচক ওঠে ৯৭০.১২ পয়েন্ট।

ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ বা নিফটি দিনের শুরুতে ২৪৪.৭৫ পয়েন্ট ওঠে। তা পৌঁছায় ১১,৬৫১. ৯০ এর ঘরে। পরে সূচক আরও উঠে ১১,৬৯৪. ১০-র ঘরে পৌঁছায়। কিন্তু কিছুক্ষণ বাদে ২১৫. ৯০ পয়েন্ট নেমে স্থির হয় ১১.৬২৩. ০৫-এর ঘরে।

দিনের শুরুতে যে কোম্পানিগুলির ওপরে ভর করে সেনসেক্সের সূচক বেড়েছে, তার মধ্যে আছে মারুতি সুজুকি, স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া, লার্সেন অ্যান্ড টুব্রো, আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক এবং মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা। নিফটির অন্তর্গত যে কোম্পানিগুলির শেয়ারের দাম সবচেয়ে বেড়েছে, তার মধ্যে আছে ইন্ডিয়াবুলস হাউসিং ফিনান্স, স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া, মারুতি সুজুকি, লার্সেন অ্যান্ড টুব্রো এবং আলট্রাটেক সিমেন্ট।

সেনসেক্সে অন্তর্গত কেবল তিনটি শেয়ারের দাম দিনের শুরুতে কমেছে। সেগুলি হল বাজাজ অটো, ইনফোসিস এবং এইচ সি এল টেকনোলজিস। নিফটির অন্তর্গত যে শেয়ারগুলির দাম কমেছে, তাদের মধ্যে আছে ডক্টর রেড্ডিস ল্যাবরেটরিস, বাজাজ অটো, টেক মাহিন্দ্রা, জি এন্টারটেনমেন্ট, ইনফোসিস এবং এইচ সি এল টেকনোলিজিস।

সোমবার টাকার দামও বেড়েছে। এদিন সকাল ন’টা বেজে ছেচল্লিশ মিনিটে ভারতীয় মুদ্রার দাম আমেরিকান ডলারের তুলনায় ৬৯ পয়সা বাড়ে। এক ডলারের দাম হয় ৬৯. ৫৯ টাকা।

সেনট্রাম ব্রোকিং সংস্থার হেড অব রিসার্চ (ওয়েলথ) জগন্নাধাম থুনুগুন্টলা বলেন, বেশিরভাগ এক্সিট পোলে দেখা যাচ্ছে, দেশে একটি স্থিতিশীল সরকার আসবে। বাজারের পক্ষে তা ইতিবাচক ইঙ্গিত। আমরা ধরে নিচ্ছি, আগামী দিনে রাজনৈতিক ক্ষেত্রে অনিশ্চয়তা দেখা যাবে না। সংস্কার চলবে।

পরে অবশ্য জগন্নাধাম বলেন, ২৩ মে-র পরে বাজারে নতুন করে অর্থনীতি ও আয়বৃদ্ধির ওপরে নজর দেওয়া হবে। এদিন জানা গিয়েছে, ভারত পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন লিমিটেড, হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন লিমিটেড ও টাটা মোটর্স শীঘ্রই ঘোষণা করবে, ২০১৮-১৯ সালের আর্থিক বছরের চতুর্থ ত্রৈমাসিকে তাদের কত আয় হয়েছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.