গান্ধী পরিবারের সবথেকে কাছের মানুষই এবার রাহুলের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে হচ্ছেন লোকসভার প্রার্থী!

কয়েক পুরুষ ধরে কংগ্রেসের কাছের মানুষদের মধ্যে একজন হলেন হাজি মোহম্মদ হারুন রাশিদ। উনি সোমবার কংগ্রেসকে চমকে দিয়ে রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে আমেঠি থেকে লড়াই করার সিদ্ধান্ত নেন। যখন রাজীব গান্ধী আর সোনিয়া গান্ধী এই আসন থেকে লড়তেন, তখন হারুনের পিতা কংগ্রেসের প্রস্তাবক ছিলেন।

হাজি হারুন কংগ্রেসের প্রতি তাঁর মোহভঙ্গ হওয়ার কারণ হিসেবে আমেঠিতে না হওয়া উন্নয়নকে দায়ী করেন। উনি বলেন, ‘কংগ্রেস যা বলে, আর যা করে দুটোর মধ্যে তফাৎ অনেক। আর সেটা আমেঠির থেকে দেশের অন্য কোথাও গেলে এরথেকে ভালো বোঝা যাবেনা। আমেঠির দারিদ্রতাই সবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে কংগ্রেস দেশের জন্য কি করেছে! আর আমি এইসব জিনিষ ঠিক করার জন্যই রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে নির্বাচনে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ”

হারুনের পিতা মোহম্মদ সুলতান অনেক পুরানো কংগ্রেস নেতা। হারুন বলেন, ‘১৯১০ সালে জন্ম নিয়েছিল আমার বাবা, আর তিনি অনেক ছোট বয়সেই কংগ্রেসের সাথে যুক্ত হয়ে জান। আমরা ৭০ বছরের ও বেশি সময় কংগ্রেসের সমর্থন করে এসেছি। কিন্তু এবার বুঝতে পেরেছি যে এই দল আমেঠির উন্নতি চায়না। যদি আমরা এখন জেগে না উঠতে পারি, তাহলে আর কোনদিনও ভাগ্য বদলাতে পারবনা।”

কোন পার্টির হয়ে লড়বে সেই নিয়ে হারুন কে জিজ্ঞাসা করা হলে উনি উত্তর দেন, এখনো আমি সিদ্ধান্ত নিইনি তবে বিকল্প ব্যাবস্থা নিয়ে বিচার বিবেচনা করছি। যদিও শোনা যাচ্ছে ওনাকে সমাজবাদী পার্টির কিছু নেতা সমর্থন করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.