VHP এর মিছিলে যোগ দিয়ে মমতা সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সহ সভাপতি

দোলের দিন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের ব্যানারে মিছিলে যোগদান করে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে মন্তব্য করায় দার্জিলিং (Darjeeling) জেলা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সহ সভাপতি প্রণবেশ মন্ডল (Probesh Mondal)(আপলু) কে বছরের জন্য সাসপেন্ড করা হল। সোমবার দোল পূর্ণিমার দিন ফাঁসিদেওয়া ব্লকের বিধাননগরে দোল মহামিলন ও হনুমান জয়ন্তী উৎসবের আয়েজন করা হয়েছিল।

প্রতি বছর বিধাননগর ভাগবত প্রচারক মণ্ডলীর তরফে বিশাল পথযাত্রা বের করা হয়। এবারেও প্রচুর মানুষ এই দোল উৎসবে মেতে উঠেছিলেন। রাজ্য পুলিশের অনুমতি নিয়েই সেই উৎসব চলছিল। তবে এদিন দুপুরে কোনো অনুমতি ছাড়াই দার্জিলিং জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সহ সভাপতি তথা ফাঁসিদেওয়া পঞ্চায়েত সমিতির প্রাক্তন সভাপতি প্রণবেশ মন্ডল (Probesh Mondal) বিশ্ব হিন্দু পরিষদের ব্যানার নিয়ে ওই মিছিলে হাজির হন বলে অভিযোগ।

অন্যদিকে, রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক পরিস্থিতি তৈরির জন্য বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সদস্যদের মিছিলে সামিল করেন। বিধাননগরের একটি স্কুলের মাঠে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের ব্যানারে সভায় প্রণবেশ মন্ডল (Probesh Mondal) বক্তব্য রাখেন। ওই বক্তব্যের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। সেখান থেকেই দার্জিলিং জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সহ সভাপতি প্রণবেশ মন্ডল (Probesh Mondal) রাজ্যের তৃণমূল কংগ্রেসের সরকার সাধারণ মানুষের সঙ্গে দ্বিচারিতা করে চলেছে বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

তিনি আরও জানান, সরকার ফাঁসিদেওয়া ব্লকের (Fasedaowa Block) মানুষের জন্য একটি শ্মশান ঘাট তৈরি করতে পারেনি। সরকারের দ্বিচারিতার বিরুদ্ধে গিয়ে রাজ্য সরকারকে তিনি বাতিল করার দাবি তুলেছেন। প্রণবেশ বাবুর এই মন্তব্য শেষ হতেই, বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সমর্থকরা ওই মঞ্চে জয় শ্রীরাম ধ্বনি উচ্চারণ করতে থাকেন। ভিডিও ভাইরাল হতেই এদিন রাতেই প্রণবেশ মন্ডলকে তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বছরের জন্য সাসপেন্ড করা হয়েছে বলে দার্জিলিং জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি রঞ্জন সরকার (Ranjan Sarkar) জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.