খাস কলকাতায় বাইক আরোহীকে ট্যাক্সিতে তুলে লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই, গ্রেপ্তার ২

খাস কলকাতার (Kolkata) বুকে এবার ঘটল টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা। প্রথমে ইচ্ছাকৃতভাবে ট্যাক্সি দিয়ে বাইক আরোহীকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়া। তারপর আহত ওই যুবককে ট্যাক্সিতে তুলে বন্দুক দেখিয়ে টাকা ছিনতাই। শুক্রবার ভয়াবহ এই ঘটনাটি ঘটেছে তিলজলা (Tiljala) এলাকায়। ইতিমধ্যে ঘটনায় জড়িত থাকায় দু’জনকে গ্রেপ্তারও করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, মহম্মদ নাদিম নামে আক্রান্ত ওই যুবক তিলজলার বাসিন্দা। ঘটনার সময় তিনি বাইকে করে যাচ্ছিলেন। সেই সময়ই তাঁর বাইকের পথ আটকায় একটি ট্যাক্সি। ধাক্কা মেরে চলন্ত বাইক থেকে নাদিমকে ফেলে দেয়। এরপরই ট্যাক্সি থেকে নেমে আসে তিন জন। জোর করে তারা মহম্মদ নাদিমকে ট্যাক্সিতে তুলে নেয়। তারপর চলন্ত ট্যাক্সির মধ্যেই মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে তিন লক্ষ টাকা চায়। শেষপর্যন্ত নাদিম ভাইকে ফোন করে টাকার ব্যবস্থা করেন।

তবে টাকা লুঠ করার পরই কসবার অ্যাক্রোপলিস মলের কাছে তাঁকে চলন্ত ট্যাক্সি থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়া হয়। এরপরই ট্যাক্সি ছুটিয়ে চম্পট দেয় অভিযুক্তরা। পরবর্তীতে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন মহম্মদ নাদিম। এরপরই ঘটনায় তদন্তে নামে প্রগতি ময়দান থানা। খতিয়ে দেখা হয়, ওই এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ। ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় ওই ট্যাক্সির চালক ও মূল অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারও করেছে পুলিশ। বাকি একজনের খোঁজে তল্লাশি চলছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, আক্রান্ত ওই যুবকের সল্টলেকে একটি কল সেন্টার রয়েছে। সেই নিয়েই গত বেশ কয়েকদিন ধরেই মূল অভিযুক্তের সঙ্গে ঝামেলা চলছিল তাঁর। আর সেজন্যই এই ঘটনাটি ঘটেছে। এমনটাই মনে করছেন পুলিশ আধিকারিকরা। তবে অন্য কোনও কারণ রয়েছে কি না, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই ঘটনায় গোটা এলাকায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.