বিতর্কসভায় হিন্দু দেবদেবীদের অপমান! লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকের বিরুদ্ধে এফআইআর

সম্প্রতি লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়র এক অধ্যাপক জ্ঞানবাপী মসজিদ এবং কাশী বিশ্বনাথ মন্দির নিয়ে এক বিতর্কিত মন্তব্য করেন। সেই মন্তব্যকে কেন্দ্র করেই উত্তাল লখনউ। এই মামলায় একদিকে যেমন সেই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়েছে। তেমনই আবার, বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে এবিভিপি সদস্যদের তরফে বিক্ষোভ প্রদর্শিত হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবারে। এক হিন্দি সংবাদ মাধ্যমের তরফে লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি বিতর্ক সভার আয়োজন করা হয়েছিল। এই বিতর্ক সভাতেই অংশগ্রহণ করেছিলেন হিন্দি বিষয়ের অধ্যাপক রবিকান্ত চন্দন। তিনি সেখানে উপস্থিত থেকে জ্ঞানবাপী মসজিদ এবং বিশ্বনাথ মন্দির নিয়ে বিতর্কে বিষয়টিকে বোঝাতে পট্টভী সীতারামাইয়ার ‘ফিদার্স অ্যান্ড স্টোন’ থেকে একটি গল্প উদ্ধৃত করে বলেন।

এরপরেই এবিভিপি-এর তরফে অভিযোগ করা হয় যে, এই বিতর্ক সভায় মন্তব্য করতে গিয়ে অধ্যাপক হিন্দু দেব-দেবীর অপমান করেছেন। এই অভিযোগ তুলেই এবিভিপিএর-এর সদস্যরা বিশ্ববিদ্যালয়ের চত্বরে প্রবেশ করে অধ্যাপকের বিরুদ্ধে স্লোগান দেয়, “দেশ কে গদ্দারোঁ কো…গোলি মারো…’। অপরদিকে, সেই বিশ্ববিদ্যালয়েরই এক ছাত্র আমন দুবে স্থানীয় থানায় এফআইআর-ও দায়ের করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.