গত ২৪ ঘণ্টায় আফগানিস্তানে ৬০ জন তালিবান জঙ্গিকে খতম করার খবর মিলেছে। জানা গিয়েছে, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে লুকিয়ে থাকা তালিবান জঙ্গিদের খতম করার উদ্দেশে অভিযান চালান আফগান স্পেশ্যাল ফোর্সের সদস্যরা। জঙ্গি ঘাঁটিগুলিতে বিমান হামলাও চালানো হয় বলে সূত্রের খবর।

আফগানিস্তানের স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, পশ্চিম আফগানিস্তানে অবস্থিত ওয়ারদক প্রদেশের লোগার ও সায়দাবাদ জেলার বারাকি বারাক ও ছারখা এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রথমে ২৯ জন তালিবান জঙ্গিকে খতম করেছেন স্পেশ্যাল ফোর্সের সদস্যরা।এই ঘটনায় জখম এক কুখ্যাত জঙ্গিকে আটক করার পাশাপাশি বিস্ফোরক ভর্তি একটি গাড়িও ধ্বংস করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। অন্য দিকে পাকটিকা প্রদেশের আমদাবাদ জেলায় জঙ্গিঘাঁটিগুলিতে অভিযান চালিয়ে উদ্ধার করা হয়েছে প্রচুর অস্ত্র। যার মধ্যে একটি ম্যাগনেটিক মাইন ও ১৬টি মাইন কন্ট্রোলারও রয়েছে। স্থানীয় গ্রামগুলোয় সন্ত্রাস চালাতে মজুত করা বোমা তৈরির প্রচুর উপাদান ঘটনাস্থল থেকে দূরে নিয়ে গিয়ে ধ্বংস করা হয়েছে।
এর পরে সামানগাম এলাকার একটি হাইওয়েতে অভিযান চালানোর সময় নিকেশ করা হয় আরও চার জন জঙ্গিকে। জখম অবস্থায় ধরা পড়ে আরও তিন জন। হেলমন্দ প্রদেশের নাওজাদ ও মুসা আলহ জেলায় ১২ জন ও উরুজগান প্রদেশের তারিঙ্ক শহরে খতম হয় ১২ জন। এখানে অভিযান চালানোর সময় তালিবান জঙ্গিদের ব্যবহৃত একটি রেডিও টাওয়ার ও প্রচুর আইইডি ধ্বংস করেন আফগান স্পেশ্যাল ফোর্সের সদস্যরা।

আফগানিস্তানের মাটিতে শান্তি ফেরাতে তালিবানদের সঙ্গে আমেরিকার যখন শান্তি আলোচনার প্রস্তুতি চলছে, তখন তালিবানদের বিরুদ্ধে এই ধরনের অভিযান সেই প্রক্রিয়াকে আঘাত করতে পারে বলেই অভিমত আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞদের একাংশের।

আবার অনেকের মতে, পাকিস্তান না পারলেও আফগানিস্তান যে তাদের মাটি থেকে জঙ্গিদের উৎখাত করতে সচেষ্ট, তা এই ঘটনার মধ্যে দিয়েই প্রমাণিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.