তৈরি হল নজির, অসমের NRC তালিকা ‘ফাইনাল,’ জানিয়ে দিল ফরেনার্স ট্রাইবুনাল

২০১৯ সালের অগস্ট মাসেই অসমের এনআরসির তালিকা তৈরি হয়ে যায়। তবে রেজিস্ট্রার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার নোটিফিকেশন এখনও বাকি রয়েছে। তবে এবার এনিয়ে একধাপ এগিয়ে গেল অসমের ফরেনার্স ট্রাইবুনাল। ফরেনার্স ট্রাইবুনাল সরাসরি জানিয়ে দিয়েছে অসমের এনআরসি তালিকাই ফাইনাল। আর ট্রাইবুনালের এই পদক্ষেপকে ঘিরে নতুন আশায় বুকে বেঁধেছেন অনেকেই।

আর ২০১৯ সালে প্রকাশিত সেই তালিকার উপর ভিত্তি করেই বিক্রম সিংহ নামে এক সন্দেহজনক ভোটারকে ভারতীয় হিসাবে ঘোষণা করেছে ফরেনার্স ট্রাইবুনাল। গত ১০ সেপ্টেম্বর এই ঘোষণা করেছে করিমগঞ্জ জেলা ফরেনার্স ট্রাইবুনাল-২। ট্রাইবুনালের দাবি যেহেতু এনআরসির ফাইনাল তালিকায় নাম রয়েছে বিক্রমের, সেকারণে তাঁকে ভারতীয় নাগরিক হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে। ২০০৮ সালে বর্ডার পুলিস তাকে সন্দেহজনক ভোটার উল্লেখ করে মামলা করেছিল।ট্রেন্ডিং স্টোরিজ

ফরেনার্স ট্রাইবুনালের সদস্য় শিশির দে জানিয়েছেন, ‘সুপ্রিম কোর্টের বেঁধে দেওয়া সময়সীমা মেনেই এনআরসি তালিকা তৈরি হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের নজরদারিতেই তা প্রকাশিত হয়েছে। সুতরাং এটি চূড়ান্ত কিনা বা এটি বৈধ কি না এনিয়ে আর কোনও সংশয়ের অবকাশ নেই।’ প্রসঙ্গত জামিরালা গ্রামের বাসিন্দা বিক্রম সিংহ। এদিকে তাঁর পরিবার ১৯৬৬ সালের আগে ভারতে থাকতেন কি না সেব্যাপারে প্রামাণ্য নথি তাঁর আইনজীবী হাজির করতে পারছিলেন না। ১৯৬৮ সালের জমির নথি, ১৯৭২ সাল পর্যন্ত তার বাবা এয়ার ফোর্সে কাজ করতেন এমন নথি বিক্রম দিয়েছিলেন। কিন্তু তারপরেও কিছুতেই কিছু হচ্ছিল না। তবে অভিজ্ঞ আইনজীবী সৌমেন চৌধুরী বলেন, এই রায়কে স্বাগত। এটা একটি নজির তৈরি করল। সমাজকর্মী কমল চক্রবর্তী বলেন, আমি ভাবতাম ফরেনার্স ট্রাইবুনাল কোনও কাজের নয়। আমার সেই ধারনা বদলে গিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.