Spicejet Karachi Landing: কেন করাচিতে অবতরণ করতে হল স্পাইসজেটের বিমানকে? তদন্তে DGCA

এদিন দিল্লি থেকে দুবাইগামী একটি স্পাইসজেটের বিমান করাচিতে অবতরণ করে। ঘটনা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে ডিজিসিএ। জানা গিয়েছে বিমানটিতে ১৫০ জন যাত্রী ছিলেন। সব যাত্রী নিরাপদে রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। উড়ান সংস্থার তরফে জানানো হয়, ইন্ডিকেটর লাইটে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণেই বিমানের অভিমুখ ঘুরিয়ে করাচিতে অবতরণ করতে হয় বিমানটিকে। পরে করাচিতে স্পাইসজেট অন্য একটি বিমান পাঠায় যাত্রীদের দুবাই নিয়ে যাওয়ার জন্য।

প্রসঙ্গত, অণ্ডালগামী বিমান টার্বুলেন্সে পড়ুক কী পটনা বা চেন্নাই থেকে টেকঅফ করা বিমানের ইঞ্জিন বিভ্রাট, বারবার খবরের শিরোনামে উঠে আসছে স্পাইসজেট। এই আবহে আজকে ফের একবার বিপত্তির সামনে পড়ল স্পাইসজেটের বিমান। এর আগে গত ২ জুলাই দিল্লি থেকে টেকঅফ করা মধ্যপ্রদেশের জবলপুরগামী স্পাইসজেটের বিমানের কেবিনে ধোঁয়া দেখা গিয়েছিল মাঝ আকাশে। পরে বিমানটিকে দিল্লি বিমানবন্দরে ফেরানো হয়েছিল। জানা গিয়েছে, বিমানটি যখন পাঁচ হাজার ফুট উচ্চতায়, তখন এই ধোঁয়া দেখা যায় কেবিনে। স্বভাবতই যাত্রীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন এতে। এর আগেও চেন্নাই-দিল্লি,মুম্বই-অণ্ডাল রুটে স্পাইসজেটের বিমানে বিপত্তি দেখা গিয়েছিল। তবে কোনও ক্ষেত্রেই বড় রকমের কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি। সম্প্রতি পটনা থেকে দিল্লিগামী স্পাইসজেটের উড়ানেও বিপত্তি দেখা দেয়। মাঝ আকাশে ইঞ্জিনে আগুন লাগলে বিমানটি পটনায় ফিরে এসেছিল।

উল্লেখ্য,সদ্য স্পাইসজেটের বোয়েইং ৭৩৭ ম্যাক্স এয়ারক্রাফ্টের ল্যান্ডিংয়ের বেশ কয়েকটি বিপত্তির ঘটনা, ইঞ্জিন বিভ্রাটের নজর কাড়ে ডিজিসিএর। বিশ্বে ২০১৯ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন দেশে ‘গ্রাউন্ডেড’ থেকেছে বোয়িং ৭৩৭। এর আগে এই বিমানে ইন্দোনেশিয়া ও ইথিওপিয়াতে পর পর দুটি দুর্ঘটনায় শতাধিক মানুষ মারা যেতেই এই বিমানের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছিল। পরে অবশ্য ফের এই বিমানটিকে সবুজ সংকেত দেওয়া হয়। তবে বারংবার স্পাইসজেটের বিমানে এই বিপত্তিতে উদ্বেগ বেড়েছে। এই আবহে ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে ডিজিসিএ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.