মাঝরাতেই হাওড়ায় রেলমন্ত্রী, বিশেষ ট্রেনে গেলেন ময়নাগুড়ির দুর্ঘটনাস্থলে

বিকানের এক্সপ্রেস দুর্ঘটনার পরই রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব জানিয়েছিলেন যে তিনি ময়নাগুড়িতে দুর্ঘটনাস্থলে যাবেন। প্রধানমন্ত্রী নিজে রেলমন্ত্রীকে ফোন করে ঘটনার খোঁজ নেন। এই পরিস্থিতিতে গতকাল গভীর রাতেই কলকাতায় এসে পৌঁছান রেলমন্ত্রী। পরে হাওড়া থেকে বিশেষ ট্রেনে ময়নাগুড়ির দুর্ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা দেন রেলমন্ত্রী। ট্রেনে ওঠার আগে সাংবাদিকদের রেলমন্ত্রী জানান যে দুর্ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত হবে।

রেলমন্ত্রী বলেন, ‘দুর্ঘটনাটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। এই দুর্ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত হবে। খতিয়ে দেখা হবে কেন এই দুর্ঘটনা ঘটল। আমি সমস্ত বিষয় খতিয়ে দেখার চেষ্টা করছি। জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী ইতিমধ্যেই উদ্ধারকাজ কাজ শুরু করেছে সেখানে। আমি নিজে দুর্ঘটনাস্থলে যাচ্ছি। আগামী দিনে যাতে এই ধরনের ঘটনার আর না ঘটে, সেদিকে নজর দেওয়া হবে। এই দুর্ঘটনার নেপথ্য়ে যান্ত্রিক ত্রুটি রয়েছে নাকি অন্য কোনও কারণ আছে, তা খতিয়ে দেখা হবে। তদন্তে খতিয়ে দেখার জন্য অনেকগুলো বিষয় রয়েছে। খুব দ্রুত এই তদন্ত শুরু হবে।’

গতকাল বিকেল পাঁচটা নাগাদ গুয়াহাটিগামী ট্রেনটি ময়নাগুড়িতে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। সেই সময় সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে কোভিড পর্যালোচনা বৈঠকে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। পরে দুর্ঘটনার বিষয়ে জানতে গতকাল সন্ধ্যাতেই রেলমন্ত্রীকে ফোন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কেন্দ্রের তরফে ঘোষণা করা হয় যে দুর্ঘটনায় মৃতদের পরিবাররকে পাঁচ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। তাছাড়া গুরুতর আহতদের ১ লক্ষ এবং সামান্য আহতদের ২৫ হাজার টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.