আগুন লাগল বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে, অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু এক কোভিড রোগী

আজ, শনিবার ভোরে আগুন লাগল বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে। এখানের কোভিড ওয়ার্ডে বড়সড় আগুন লাগে। যার জেরে সেই আগুনের লেলিহান শিখায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু হল এক করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর। এই ঘটনায় গোটা হাসপাতাল চত্বরে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। দমকল এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসার আগেই ঘটে যায় দুর্ঘটনা।

ঠিক কী ঘটেছে হাসপাতালে?‌ হাসপাতাল সূত্রে খবর, এখানে ভোরবেলায় আগুন দেখতে পান এক কোভিড রোগী। তিনি চিৎকার করে সকলকে খবর দেন। হাসপাতালের কর্মীরা তখন আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসার চেষ্টা করেন। এখানে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সন্ধ্যা মণ্ডল (৬০) অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যান। তাঁর বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের গলসির বড়মুড়িয়া গ্রামে। পরে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকলের ইঞ্জিন।ট্রেন্ডিং স্টোরিজ

এই বিষয়ে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ বলেন, ‘এই ঘটনা খুবই দুঃখজনক। আগুন লাগার কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। শীঘ্রই একটি পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।’ শনিবার ভোর সাড়ে চারটে নাগাদ কোভিড ওয়ার্ডে প্রথম আগুন লাগে বলে জানা গিয়েছে। সেখানেই ৬ নম্বর ব্লকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী ভর্তি ছিলেন। যিনি মারা গিয়েছেন।

দমকল সূত্রে খবর, শট সার্কিট থেকে আগুন লাগেনি বলেই মনে হচ্ছে। তবে সবটা খতিয়ে দেখতে হবে। ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখা যায় আগুন অনেকটা নিয়ন্ত্রণে। কোভিড ওয়ার্ডের বিছানা থেকে দেশলাই এবং লাইটার উদ্ধার হয়েছে। সেখান থেকেও আগুন লাগতে পারে। কিভাবে আগুন লেগেছে?‌ তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তারপরই গোটা বিষয়টি পরিষ্কার হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.