জ্ঞানবাপীর পর এবারে শাহী ঈদগা মসজিদ! ‘হিন্দুদের অংশ ফিরিয়ে দেওয়া হোক’, দাবি মামলাকারীদের

জ্ঞানবাপী মসজিদ এবং শৃঙ্গারগৌরী মন্দির মামলাকে সামনে রেখে অনুরূপ মামলা দায়ের করা হয়েছে মথুরা শ্রীকৃষ্ণের জন্মভূমি এবং শাহী ঈদগা মসজিদ ঘিরে। মামলাকারীদের সাফ দাবি, হিন্দু মন্দিরের বহু নির্দেশন রয়েছে শাহী ঈদগা মসজিদের ভিতরে। এবারে আদালত, হিন্দুদের অংশ হিন্দুদেরকে ফিরিয়ে দিক। বারাণসী আদালতের মত ভিডিও সমীক্ষার নির্দেশ দিক মথুরার ক্ষেত্রেও, এমনই দাবি মামলাকারীদের।

প্রসঙ্গত, মথুরা শ্রীকৃষ্ণ জন্মস্থান হিসেবেই খ্যাত। এর ঠিক পিছনেই অবস্থান করেছে শাহী ঈদগা মসজিদ। এখন এই মসজিদকে সরিয়ে নেওয়ার জন্য একগুচ্ছ মামলা অনেক আগে থেকেই দায়ের করা হয়ে রয়েছে মথুরার আদালতে। ওদিকে, ইলাহাবাদ হাই কোর্ট নিম্ন আদালতকে নির্দেশ দিয়েছে এই সমস্ত মামলা আগামী চার মাসের মধ্যে নিষ্পত্তি করে দিতে। গত ১৩ ই মে, নারায়ণী সেনা নামের এক সংগঠনের জাতীয় সভাপতি মণীশ যাদব এই মামলাটি দায়ের করেছেন। নারায়ণ সেনার সভাপতির দাবি, ‘হিন্দু মন্দিরের বহু নিদর্শন রয়েছে শাহী ঈদগা মসজিদ। এখন থেকে রক্ষণাবেক্ষণ না করা হলে আগামী দিনে সেগুলি নষ্ট হয়ে যেতে পারে। সেই কারণে দ্রুত ভিডিও সমীক্ষা করার প্রয়োজন রয়েছে।’ মণীশ যাদব আরও জানিয়েছেন, ‘এই মামলাটি জুলাই মাসের প্রথম দিকে উঠবে আদালতে।’ এখানে জানিয়ে রাখি, শ্রীকৃষ্ণ জন্মভূমি পুনরুদ্ধার সংক্রান্ত মামলার মূল আবেদনকারীও হলেন মণীশ যাদব।

মামলায় বলা হয়েছে, শ্রীকৃষ্ণের জন্মভূমি ওপর যে মসজিদটি তৈরি হয়ে রয়েছে সেটি সরিয়ে দিতে হবে। তবে এই সমস্ত মামলা নতুন কিছু নয়। বহু আগে থেকেই মামলা দায়ের হয়ে রয়েছে। ওদিকে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ অনেক আগে থেকেই জানিয়েছে, রাম জন্মভূমি পুনরুদ্ধারের পর তারা মথুরা এবং বারাণসী নিয়ে লড়াইতে নামবেন। তারা লড়াই শুরুও করে দিয়েছেন আইনের পথে। এখন দেখার বিষয়, আগামী দিনে আদালত কী রায় দেয় শাহী ঈদগা মসজিদ ঘিরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.