উপনির্বাচনের জন্য প্রার্থী ঘোষণা বিজেপির, দীর্ঘদিন ধরে দলের সঙ্গে যুক্তদের দেওয়া হল প্রাধান্য।

 ৩০ সেপ্টেম্বর ভবানীপুরের উপনির্বাচন হয়েছে। এখনও রাজ্যের ৪টি আসনে উপনির্বাচন হওয়া বাকি। আগামী ৩০ অক্টোবর ওই কেন্দ্রগুলোতে উপনির্বাচন হতে চলেছে। আর সেই উপনির্বাচনের জন্য এবার প্রার্থীর নাম ঘোষণা করল বিজেপি। উল্লেখ্য, গত ২ অক্টোবর ভবানীপুর কেন্দ্রের গণনার দিনেই ওই চার কেন্দ্রের জন্য প্রার্থী ঘোষণা করেছিল তৃণমূল। আর এবার বিজেপির পালা।

বিজেপির এই প্রার্থী তালিকায় আর সদ্য তৃণমূল ছেড়ে দলে আসা নেতাদের রাখা হয়নি। স্থানীয় এবং দীর্ঘদিন ধরে দলের সঙ্গে যুক্ত নেতাদেরই প্রার্থী করেছে বিজেপি। পাশাপাশি চার কেন্দ্রের উপনির্বাচনের প্রার্থী বাছাইয়ে কোনও চমকও রাখেনি গেরুয়া শিবির।

নদিয়া জেলার শান্তিপুর বিধানসভা কেন্দ্রের জন্য নিরঞ্জন বিশ্বাসকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। নিরঞ্জনবাবু দীর্ঘদিন ধরেই বিজেপির সঙ্গে যুক্ত এবং উনি স্থানীয় বাসিন্দা। এছাড়াও ওনার সবথেকে বড় পরিচয় হল তিনি একজন স্কুল শিক্ষক।

কোচবিহারের দিনহাটায় অশোক মণ্ডলকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। অশোকবাবু গোঁড়া থেকে বিজেপির সঙ্গে যুক্ত না হলেও, তিনি দীর্ঘদিন ধরেই গেরুয়া শিবিরে রয়েছেন। ২০১৬ সালে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন তিনি।

গোসাবায় বিজেপির তরফ থেকে প্রার্থী করা হয়েছে পলাশ রানাকে। তিনি একসময় তৃণমূলেরই ছিলেন তবে দীর্ঘদিন আগেই তিনি তৃণমূলের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করে গেরুয়া শিবিরে নাম লেখান। এছাড়াও খড়দহে বিজেপির প্রার্থী হয়েছেন জয় শাহা। তিনি বিজেপির সাংসদ অর্জুন সিংয়ের ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.