তমলুক লোকসভার অন্তর্গত মহিষাদল, নন্দকুমার ও হলদিয়াতে কর্মীসভা এবং জনসংযোগ করলেন তমলুক লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সিদ্ধার্থ নস্কর।

শুক্রবার নন্দকুমারে আয়োজিত ওই কর্মী সভায় তমলুক লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সিদ্ধার্থ নস্কর বলেন, “এই যুদ্ধটা হবে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের। এই যুদ্ধে আপনারা বীর ‘অভিনন্দন’র মতো সৈন্য। তৃণমূল রাজ্যে গণতন্ত্রকে হত্যা করে পরিবারতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠা করেছে। আমাদের প্রথম লক্ষ্য হবে মানুষের যোগ্য সম্মান ফিরিয়ে দেওয়া।তার জন্য এই যুদ্ধে প্রথম কারিগর হলেন বিজেপির কার্যকর্তারা।”

তিনি আরও বলেন, “যে কোন সময় পৃথিবী যখন ভারাক্রান্ত হয়ে যায়, ঠিক সেইসময় কিন্তু মাতৃশক্তির আবির্ভাব হয়। সমস্ত দেবতারা যখন অশুরের অত্যাচারে পরাজিত হয়ে গিয়েছিলেন, তখন দেবতারা কঠোর তপস্যা করেছিলেন। সেই তপস্যা রশ্মি থেকে একটা ‘নারী’ সৃষ্টি হয়েছিল। তার নাম ‘মহামায়া’। সমস্ত দেবতারা এই মহামায়াকে অস্ত্র প্রদান করেছিল। সেই সকল অস্ত্র দিয়ে মহামায়া অশুরকে বোধন করেছিলেন। আর সেই অশুরের অত্যাচারে আপনারা তমলুকে লুকিয়ে লুকিয়ে কাঁদছেন। অনেক গুণ্ডাগিরি করেছো, অনেক মায়ের কোল খালি করেছো, অনেক বাবাকে কাঁদিয়েছো। এইবার তোমরা শুধু দেখতে থাকো, আমরা তোমাদের দেখাবো।”

শাসক তৃণমূল কংগ্রেসকে আক্রমণ করে বিজেপি প্রার্থী সিদ্ধার্থ নস্কর আরও বলেছেন, “আমার কাছে খবর আসছে তৃণমূল দিকে দিকে ‘আর্মি’ সেজে ঘুরছে। তাহলে আপনারা নির্বাচন কমিশনকে জানাবেন। সেইসঙ্গে তাদের ভোটের পরিচয়পত্রটি দেখবেন। তারপর ভোটের কার্ড কেড়ে নেওয়া হচ্ছে।বাম আমলেও হয়েছে, আর তৃণমূল একটু মডিফায়েড করে করছে। তাই নোংরা লোকগুলোকে বিজেপি কোলাঘাটের কাছে গঙ্গায় বিসর্জন দিয়ে তাদের বুঝিয়ে দেবে।”

পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূলের সভাপতি শিশির অধিকারী অবশ্য বলেন, “লোকসভা ভোটে বিজেপির হার নিশ্চিত।তাই এইসব উল্টোপাল্টা বলে বেড়াচ্ছে।তবে বিজেপিকে আমরা কোন গুরুত্বই দিচ্ছি না।আমরা বিয়াল্লিশে ৪২টি আসনই পাব।”


Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.