জয় শ্রীরাম লেখা লক্ষ লক্ষ পোস্ট কার্ড পৌঁছবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ি

এবার প্রতিবাদের ভাষা হয়ে উঠতে চলেছে জয় শ্রীরাম ধ্বনি। যে জয় শ্রীরাম ধ্বনি দেওয়ায় রাজ্যের বেশকিছু মানুষকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে , অনেকে আক্রান্ত হয়েছেন, এবার সেই জয় শ্রীরাম ধ্বনি লেখা ১০ লক্ষ পোস্ট কার্ড পাঠিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানানোর কর্মসূচি নিল বিজেপির যুব সংগঠন। একরকম গান্ধীগিরির পথে প্রতিবাদের পথ বেছে নিল পদ্মশিবির বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহল।

হ্যাঁ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে জয় শ্রীরাম লেখা লক্ষ লক্ষ পোস্ট কার্ড পৌঁছবে খুব তাড়াতাড়ি। এমনই এক অভিনব কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেছে বিজেপি যুব মোর্চা।

নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে চন্দ্রকোনায় মুখ্যমন্ত্রীর কনভয় দেখে জয় শ্রীরাম স্লোগান দিয়েছিলেন কয়েকজন। আর তা শুনেই মুখ্যমন্ত্রী গাড়ি থেকে নেমে তাদের দিকে তেড়ে গিয়েছিলেন। এরপর ওই ঘটনায় পুলিশী পদক্ষেপও করা হয়েছে। জলও অনেক দূর গড়িয়েছে। রাজ্যের একাধিক জায়গায় জয় শ্রীরাম ধ্বনি দেওয়ায় নিগৃহীত হয়েছেন বিজেপির বহু কর্মী সমর্থক। তাই এক অভিনব কর্মসূচি পালন করতে নামল বিজেপি যুব মোর্চা।

বৃহস্পতিবার এই কর্মসূচির ঘোষণা করেছে তারা। রাজ্য বিজেপির টুইটার হ্যান্ডেলে একটি পোস্টকার্ডের ছবিও টুইট করেছে যুব মোর্চা। প্রতিটি পোস্ট কার্ডে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির ঠিকানা লেখা রয়েছে। আর তার পাশেই ফাঁকা জায়গায় লেখা রয়েছে অনুগ্রহ করে জয় শ্রীরাম লিখুন এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি আপনার বার্তা লিখে নিকটবর্তী পোস্ট অফিসে জমা দিন।

এই প্রসঙ্গে দলের রাজ্য যুব মোর্চার সভাপতি দেবজিৎ সরকার বলেন, গোটা রাজ্যের যুব মোর্চার কর্মীরা মুখ্যমন্ত্রীর কাছে জয়শ্রীরাম লেখা পোষ্টকার্ড পাঠাবেন। মুখ্যমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানাতেই যুব মোর্চা জয় শ্রীরাম লেখা পোস্টকার্ড পাঠাবেন বলে জানান তিনি। তার দাবি, এরাজ্যই সবথেকে বেশি রামভক্ত মানুষ বসবাস করেন। কারন বাঙালি শরৎকালে অকালবোধনে দুর্গাপূজা করে। আর অকালবোধনে দুর্গাপূজা শুরু করেছিল ভগবান রামচন্দ্র। তাই তাঁরা মুখ্যমন্ত্রীকে বোঝাতে চান রাজ্যের মানুষ রামচন্দ্রকে কতটা শ্রদ্ধা করে। সেই জন্য তাঁরা মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে জয়শ্রীরাম লেখা পোষ্টকার্ডে শুভেচ্ছা পাঠাবেন। দেবজিৎবাবু আরও বলেন, “আমরা জয় শ্রীরাম বললে পাল্টা অনেকে রামরাম বলেন। তবে, মুখ্যমন্ত্রী এখন রামরাম বলে কিনা সেটা আমরা দেখবো।”

জয় শ্রী রাম লেখা ১০ লক্ষ পোস্ট কার্ড আমজনতার মধ্যে বিলি করা হবে বলে জানিয়েছে যুব মোর্চা। বিভিন্ন দলীয় কার্যালয় এই পোস্ট গুলি থাকবে। যারা এই পোস্ট কার্ড নেবেন তারা শুধু জয় শ্রীরাম লিখে কাছের যেকোনো পোস্ট অফিসে ফেলে দেবে ঐ পোস্ট কার্ডগুলি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.