উন্মোচন হলো স্বামী বিবেকানন্দের সবথেকে উঁচু মূর্তি! এক দৃষ্টিতেই নজর কাড়বে সবার

ভারতকে বিশ্বগুরু করার স্বপ্ন দেখানো স্বামী বিবেকানন্দের (Swami Vivekananda) প্রতি দেশের জনগণের শ্রদ্ধা ও ভক্তি যেন বেড়েই চলেছে। যত সময় যাচ্ছে স্বামী বিবেকানন্দকে দেশের যুব সমাজ নতুন করে চিনতে আরম্ভ করছে। আসলে শনিবার দিন কর্ণাটকের উদপি জেলায় স্বামী বিবেকানন্দের সবথেকে উঁচু মূর্তির উন্মোচন করা হয়েছে। স্বামী বিবেকানন্দের মূর্তিটি ৩৫ ফুট উঁচু যা এখনও অবধি উনার সবথেকে উঁচু মূর্তি। কন্যাকুমারিতে স্বামী বিবেকানন্দের যে আকর্ষণীয় মূর্তি রয়েছে তার থেকেও এই মূর্তিটি উঁচু বলে জানা যাচ্ছে। ডিভাইন পার্কে যোগা হাসপাতালের নিকট এই মূর্তি নির্মাণ হয়েছে। মূর্তিটি টুরিসমকে প্রমোট করবে বলে স্থানীয়রা দাবি করছেন।

Unveiling World’s Tallest Statue of Swami Vivekananda in Sarvah Kshema Hospital & Research Foundation, a division of Divinepark- Saligrama, Udupi district. Karnataka 😊🙏 pic.twitter.com/KzxUtU1Oxe

— Pronam Bharat (@BharatPronam) February 3, 2020

বিশ্ব যখন সনাতন ধর্মের মহিমা ভুলে যাচ্ছিল তখন স্বামী বিবেকানন্দ আমেরিকার শিকাগো শহরের বিশ্ব ধর্ম সম্মেলনে সকলকে হিন্দু সংস্কৃতির শক্তি দেখিয়েছিলেন। স্বামী বিবেকানন্দ পুরো বিশ্বকে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন সকল ধর্মের জননী হলো সনাতন হিন্দু ধর্ম। শুধু এই নয়, স্বাধীনতাকে দরজায় এসে দাঁড় করিয়ে দেওয়া থেকে শুরু করা বাঘা যতীন থেকে শুরু করে নেতাজি সকল বীর স্বাধীনতা সংগ্রামী স্বামী বিবেকানন্দ দ্বারা প্রভাবিত ছিলেন।

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু নিজের আদর্শ হিসেবে স্বামী বিবেকানন্দকে বসিয়ে ছিলেন। আর এখন বর্তমান সময়েও দেশের যুবকরা আরো একবার স্বামী বিবেকানন্দের প্রতি যেভাবে নিজেদের আগ্রহ বৃদ্বি করছে তাতে দেশের একটা বড়ো পরিবর্তন আসার গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে।

কর্ণাটকের ডিভাইন পার্কে স্বামী বিবেকানন্দের এই মূর্তিতে এক দৃষ্টিতে যে সকলের নজর কাড়বে তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। মূর্তির স্থান, গঠন থেকে শুরু করে সৌন্দর্য্য সবকিছুই বেশ আকর্ষণীয়। ডিভাইন পার্কের প্রধান ডাঃ চন্দ্রশেখর উদূপা বলেছেন মূর্তিটি আত্মার সম্ভাব্য ঐশ্বরত্ব’ ধারণার প্রতিনিধিত্ব করে এবং ধর্মতত্ত্বের একটি নতুন ধারণা দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.