বিজেপি এক অদ্ভুত দল। আজ যে রাজা, কাল সে ফকির। কাল যে ফকির ছিল, আজ সে রাজা হবে! রাজার ব্যাটা রাজা না, কোটালপুত্রও রাজা হতে পারে এই দলে

বিজেপি এক অদ্ভুত দল। আজ যে রাজা, কাল সে ফকির। কাল যে ফকির ছিল, আজ সে রাজা হবে! রাজার ব্যাটা রাজা না, কোটালপুত্রও রাজা হতে পারে এই দলে। নয়তো চাল নাই, চুলো নাই, বাবার মায়ের রাজনৈতিক ব্লু ব্লাড নেই এক বাউন্ডুলে একদম টপ টপ টপে পৌঁছে হাঁক দেয় অহরহ – মিঁত্রোওওওওও!

সুকান্ত মজুমদার গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক। বাংলার তরুণ সাংসদ। বালুরঘাটের ভূমিপুত্র, কথায় উত্তর বঙ্গীয় টান রয়েছে, ওপার বাংলায় শিকড় বাকর আর আক্ষেপ রয়েছে, সুকান্তরও একখ্যান দ্যাশ ছিল। সুকান্ত এখনো আগের মতই লোকাল ট্রেনে চাপে, সুকান্ত আগের মতোই মুড়ির টিনের মতো লজঝরে বাসে পার্টি অফিসে যায়। সুকান্তর এখনও একখান বাড়ি নেই কলকাতায়। শিয়ালদা ডিআরএম গেস্ট হাউসই কলকাতার বাসা। সুকান্তর চিন্তা এখন দলের কার্যালয় এর কাছাকাছি মাথা গোঁজার ঠাঁই খোঁজা। দলের নবনিযুক্ত রাজ্য সভাপতি এখন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার।

সুকান্ত ছোট থেকে আরএসএস করেছে, যুব সংগঠন করেছে।উত্তরবঙ্গ কাছ থেকে দেখেছে, কলকাত্তাইয়া বাবুয়ানার একশো গজ দূরে থেকেছে আজীবন আর এক মুঠো বাংলা পকেটে ভরে হিল্লি দিল্লি করেছে।

বিজেপি এক আজব দল। ঠিক যেখানে guessing game শেষ হবে, বিজেপি সেখান থেকে নিজের খেলা শুরু করবে। আপনি হয়তো ভাবলেন রামবাবু খুব টিভিতে আসে, হ্যান করেন, ত্যান করেন তাই রামবাবুকেই দায়িত্ব দেওয়া হবে৷ দেখবেন আপনাকে চমকে দিয়ে শ্যামবাবু যে সব মিটিং এর শেষে বসে থাকতো আর বাকিরা যাকে দুধে ভাতে ভাবতো তাকেই স্পটলাইটে আনা হল। বিজেপি এক অদ্ভুত দল। আজ যে রাজা, কাল সে ফকির। কাল যে ফকির ছিল, আজ সে রাজা হবে! রাজার ব্যাটা রাজা না, কোটালপুত্রও রাজা হতে পারে এই দলে। পরিবার না, দলই পরিবার এখানে। তাই বোধহয় কোন বিশেষ পরিবারকে না তেল মেরেও এখানে টং এ ওঠা যায়। সংঘ পরিবার ইস ওয়াচিং ইউ! লাটাই এবার সংঘের হাতে। গোটানো শুরু করছে? সুখের পায়রাদের সুখের দিন শেষ?

©—- ময়ূখ রঞ্জন ঘোষ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.