অবশেষে প্রথম লোকপাল পেল ভারত। সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি পিনাকী চন্দ্র ঘোষকে ভারতের প্রথম লোকপাল হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতেই রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ তাঁর নিয়োগপত্রে সই করেন।

লোকপাল ছাড়া লোকপালের অন্য সদস্যদেরও নিয়োগ করা হয়েছে। লোকপালের আইনসভার সদস্য হিসেবে চারজনকে নিয়োগ করা হয়েছে। এঁরা হলেন, বিচারপতি দিলীপ বি ভোঁসলে, বিচারপতি প্রদীপ কুমার মোহান্তি, বিচারপতি অভিলাষা কুমারী ও বিচারপতি অজয় কুমার ত্রিপাঠি। এঁরা চারজনই হাইকোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি।

এই আইনসভার সদস্য ছাড়াও লোকপালের আরও পাঁচজনকে লোকপালের সদস্য হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে। এঁরা হলেন, দীনেশ কুমার জৈন, অর্চনা রামাসুন্দরম, মহেন্দ্র সিং ও ড. ইন্দ্রজিৎ প্রসাদ গৌতম। এঁরা প্রত্যেকেই প্রাক্তন আমলা ছিলেন।

লোকপাল নিয়োগ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ, লোকসভার স্পিকার সুমিত্রা মহাজন এবং বিশিষ্ট আইনজীবী মুকুল রোহতগি গত শুক্রবার বৈঠক করেন। এই বৈঠকেই ভারতের প্রথম লোকপাল হিসেবে সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি পিনাকী চন্দ্র ঘোষের নাম উঠে আসে। এই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হওয়ার পরেই তা অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয় রাষ্টপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে। মঙ্গলবার রাষ্ট্রপতি তাতে সিলমোহর দেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের মে মাসে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতির পদ থেকে অবসর নেন পিনাকী চন্দ্র ঘোষ। তারপর থেকেই তিনি জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্য হিসেবে কাজ চালাচ্ছেন। এ বার তিনি নিযুক্ত হলেন দেশের প্রথম লোকপাল হিসেবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.