পিছিয়ে যেতে পারে লোকসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার দিন। কারণ ভোট গণনা হতে ঢের সময় লাগতে পারে। এমনই জানিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন।

ইভিএম মেশিনে কারচুপি করা হচ্ছে। এমনই অভিযোগ তুলেছে একাধিক বিরোধী দল। সেই কারণে ভিভিপ্যাট মেশিন ব্যবহার চালু হয়েছে। কিন্তু সেই ভিভিপ্যাট মেশিন থেকে বের হওয়া স্লিপ মিলিয়ে দেখা হয় না।

দেশের ২১টি বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দল সেই স্লিপ মিলিয়ে দেখার দাবি জানায়। একই সঙ্গে এও বলা হয় যে কমপক্ষে মোট স্লিপের অর্ধেক মিলিয়ে দেখা হোক। এই দাবি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলাও করা হয়। সেই মামলায় দেশের সর্বোচ্চ আদালতে জবাব দিতে গিয়ে ফল ঘোষণায় তত্ত্ব দিয়েছে কমিশন।

সমগ্র দেশে মোট সাত দফায় অনুষ্ঠিত হবে সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচন। যা আগামি ১১ এপ্রিল থেকে শুরু হয়ার কথা। ২৩ মে ভোট গণনা হবে এবং ওই দিনেই ফলাফল ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। কিন্তু এই ভিভিপ্যাট মেশিনের স্লিপ মিলিয়ে দেখতে গেলে পূর্ব নির্ধারিত দিন বদলে যেতে পারে বলে জানিয়েছে কমিশন।

শুক্রবার নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে সুপ্রিম কোর্টে জানান হয়েছে যে কমপক্ষে অর্ধেক ভিভিপ্যাট স্লিপ মিলিয়ে দেখতে হলে ফল প্রকাশে আরও দিন পাচেক বেশি সময় লাগবে। যার অর্থ ফল ঘোষণা ২৩ মে-র বদলে হতে পারে ২৮ মে।

এই বিষয়ে কমিশনের পক্ষ থেকে ব্যাখাও করা হয়েছে সুপ্রিম কোর্টে। কমিশনের বক্তব্য হচ্ছে, দেশে বহু বিধানসভা কেন্দ্র রয়েছে যেখানে ৪০০ বেশি বুথ রয়েছে। ওইসব জায়গায় ভিভিপ্যাট স্লিপ গণনা করতে গেলে অন্তত ৮-৯ দিন লেগে যাবে। বর্তমানে ভিভিপ্যাট স্লিপে কোনও বারকোড নেই। ফলে তা গণনা করতে হবে হাতেহাতেই। সেক্ষত্রে ফল ঘোষণা হতে ৩০ বা ৩১ মে হয়ে যেতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.