ভোট দিয়ে বললেন ‘কুম্ভস্নানের পুণ্য হল’, চারপাশে উঠল মোদী-মোদী রব

সবথেকে বেশি কেন্দ্রের নির্বাচন হচ্ছে তৃতীয় দফায়। ১১৭টি কেন্দ্রে ভোট দেবেন মানুষ। বহু হেভিওয়েট প্রার্থীর ভাগ্যনির্ধারণ হবে এদিন। তবে এদিন সকাল থেকে লাইমলাইট কাড়লেন মোদীই। মায়ের হাতে খাওয়া থেকে শুরু করে ভোটকেন্দ্র, এদিন সকাল থেকেই নজর ছিল প্রধানমন্ত্রীর দিকে।

আমেদাবাদে গিয়ে ভোট দেওয়ার পর বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন নরেন্দ্র মোদী। বলেন, ”আজ তৃতীয় দফার ভোট। আজ নিজের দায়িত্ব পালন করতে পেরে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে হচ্ছে।” তিনি আরও বলেন,” কুম্ভমেলায় স্নান করে যে পবিত্রতার আনন্দ হয়, গণতন্ত্রের যজ্ঞে ভোট দিয়ে সেই পবিত্রতার অনুভূতি হচ্ছে।”

দেশবাসীর উদ্দেশে তিনি বলেন, যাতে প্রত্যেকে উৎসাহের সঙ্গে বুথে গিয়ে ভোট দেন। তিনি বলেন, ২১ শতকে যাঁরা জন্মেছেন এবার লোকসভা নির্বাচনেই প্রথম তাঁরা ভোট দিতে চলেছেন। সেইসব প্রথম ভোটারদের স্বাগত জানিয়েছেন তিনি। ১০০ শতাংশ ভোট দেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন তাঁদের কাছে।

মোদী বলেন, ‘ভারতের মানুষ বিচক্ষণ। জল আর ক্ষীরের তফাৎ জানেন তাঁরা।’ সাংবাদিক বৈঠকের সময় তাঁর চারপাশ থেকে শোনা যায় মোদী-মোদী স্লোগান।

ভোট দেওয়ার আগে গুজরাতের রাজধানী শহর গান্ধিনগরে মা হীরাবেন মোদীর সঙ্গে দেখা করেন নরেন্দ্র মোদী। সেখানে গিয়ে নিজের বাড়িতে যান মোদী। বাড়িতে গিয়ে মায়ের সঙ্গে দেখা করেন প্রধানমন্ত্রী। মায়ের পা ছুঁয়ে প্রণাম করেন। ছেলেকেও আশীর্বাদ করেছেন মা হীরাবেন মোদী।

প্রত্যেকটি দফার মত এদিনও সকালে ট্যুইট করে ভোট দেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন মোদী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.