আপনি কি ক্যানসার রোগী? আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পে নাম লেখানো আছে? তাহলে আপনার জন্য সুখবর৷ ক্যানসার বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে পরামর্শ নিতে আর দুরে কোথাও যেতে হবে না৷ দেশের সেরা ক্যানসার চিকিৎসকরা আপনার কাছেই পৌঁছে যাবে৷৷ সৌজন্যে প্রধানমন্ত্রীর আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প৷

ন্যাশনাল ক্যানসার গ্রিডকে পাশে পেতে কথাবার্তা শুরু করেছে ন্যাশনাল হেলফ অথরিটি৷ মুম্বইয়ের টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতাল থেকে ন্যাশানাল ক্যানসার গ্রিড (তাদের পরিভাষায় ভার্চুয়াল টিউমার বোর্ড) ডিজিটাল নেটওয়ার্কের সাহায্যে দেশের হাসপাতালগুলির সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করে৷ তাদের কাজ হল জটিল ক্যানাসার রোগের কেসগুলি স্টাডি করা এবং সুপরামর্শ দেওয়া৷ সেই সুবিধা আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের উপভোক্তারা পান তার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ন্যাশনাল হেলফ অথরিটি৷

আয়ুষ্মান ভারতের ডেপুটি সিইও দীনেশ অরোরার আশা প্রকাশ করে জানান, আর ২-৩ সপ্তাহের মধ্যে ন্যাশনাল ক্যানসার গ্রিডের সঙ্গে একটি চুক্তি সই করা হবে৷ এতে উপভোক্তাদের কাছে সহজেই ক্যানাসারের চিকিৎসকরা পৌঁছে যেতে পারবেন৷ তেমনই সব ধরনের ক্যানাসার চিকিৎসার মাপকাঠি নির্ধারণ করে প্রোটোকল ও গাইডলাইন তৈরি করা যাবে৷

প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য যোজনার প্রায় ৩০ শতাংশ ক্যানসার রোগীর চিকিৎসা চলছে৷ সরকার শুধুমাত্র ক্যানসার রোগীদের চিকিৎসায় এই প্রকল্পে ৪০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে৷ তবে নানা কারণে দেশের অনেক ক্যানসার রোগী এখনও আয়ুষ্মান প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত হতে পারেননি৷ তার অন্যতম প্রধান কারণ ক্যানসার হাসপাতালের অভাব৷ পরিসংখ্যান বলছে দেশে ক্যানসারের জন্য ১ হাজার ৫৭৪টি হাসপাতাল রয়েছে৷ এর মধ্যে ৪৩৮টি হাসপাতালে মাল্টি মোডাল ট্রিটমেন্ট ফেসিলিটি যার মধ্যে কেমোথেরাপি ও রেডিয়েশন চিকিৎসার সুবিধা পাওয়া যায়৷ তবে অরোরা জানান, ক্যানসার রোগের চিকিৎসায় পরিকাঠামোর উন্নয়নেও জোর দিতে হবে৷

প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য যোজনায় বার্ষিক ৫ লক্ষ টাকা বিমার সুযোগ রয়েছে৷ ১০.৭৪ কোটি পরিবারের ৫০ কোটি উপভোক্তা এই প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত৷ এখনও অবধি এই প্রকল্পে ১৬.৮২ লক্ষ হাসপাতাল যুক্ত হয়েছে৷

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.