মায়ের আশীর্বাদ নিয়ে ‘শক্তিশালী’ ভোট দিলেন মোদী, লাইনে দাঁড়িয়ে আদর করলেন শিশুকে

 সকাল সকাল গান্ধীনগরে মা হীরাবেনের সঙ্গে দেখা করতে যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মায়ের আশীর্বাদ নেওয়ার পরে, মিষ্টিমুখ করে, আহমেদাবাদের রনিপের কেন্দ্রে এসে ভোট দেন প্রধানমন্ত্রী। ভোট দিয়ে বেরিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, “কুম্ভে স্নান করলে যেমন পবিত্র হওয়া যায়, গণতন্ত্রের উৎসবে ভোট দিয়ে একই অনুভব হয়।” তিনি আরও জানান, জঙ্গিদের আইডি বিস্ফোরকের থেকেও বেশি শক্তি রাখে মানুষের ভোটার আইডি।মোদীর হুডখোলা জিপ বুথে আসার সময়ে রাস্তায় প্রায় ছোটোখাটো একটা রোড-শো হয়ে যায়। বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট পরে ছিলেন মোদী। তাঁকে ঘিরে রেখেছিলেন নিরাপত্তারক্ষীরা। স্বভাবসুলভ ভাবেই ভোটারদের উদ্দেশে হাত নাড়তে থাকেন মোদী।ভোট দেওয়ার পরে বেরিয়ে আঙুলের ভোটের কালি দেখিয়ে সাংবাদিকদের সামনে পোজ় দেন মোদী।

মোদীর ভোটদানের বুথে উপস্থিত ছিলেন সপরিবার অমিত শাহ-ও। ছোট্ট করে সেখানে কিছু কথাবার্তাও সেরে নেন দুই সহযোদ্ধা। ভোট দেওয়ার আগে উৎসাহী এক ভোটারের সঙ্গেও আলাপচারিতা করতে দেখা যায় মোদীকে। অমিত শাহর নাতনিকে কোলে নিয়ে আদরও করেন তিনি।

এদিন ভোট দেওয়ার পর ভোটপ্রচারেও রওনা হয়ে যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বিকেলে আসানসোলে বাবুল সুপ্রিয়-র সমর্থনে সভাও করবেন তিনি।

ভোট দিয়ে বেরোনোর সময়ে ‘মোদী মোদী’ আওয়াজের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, “আমার ভোটটি দিতে পেরে আমি গর্বিত। গণতন্ত্রের উৎসবে সামিল হতে পেরে ভাল লাগছে খুব। নিজেকে শুদ্ধ লাগছে, গঙ্গাস্নান করার মতোই।” তিনি আরও বলেন, “ভোটাররা যথেষ্ট বিচক্ষণ। তাঁরাও ভাল-মন্দ বুঝেই ভোট দেবেন।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.