China: চুরি হয়ে যাবে প্রযুক্তি, চিনের সঙ্গে ব্যবসায় মানা আমেরিকা ও ব্রিটিশ গোয়েন্দা প্রধানের

আক্রমণই রক্ষণের শ্রেষ্ঠ উপায়। আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে ‘চিনা আগ্রাসন’ ঠেকাতে এ বার সক্রিয় হল আমেরিকা ও ব্রিটেনের গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই এবং এমআই-৫। বুধবার যৌথ সাংবাদিক বৈঠকে এফবিআইয়ের ডিরেক্টর ক্রিস্টোফার রে এবং এমআই-৫-এর প্রধান জেনারেল কেন ম্যাকলাম সম্ভাব্য চিনা বিপদ সম্পর্কে বাণিজ্য সংস্থা এবং বণিক সংগঠনগুলিকে সতর্ক করেছেন।

সাম্প্রতিক কালে বিশ্বের দুই প্রথম সারির গোয়েন্দা সংস্থার প্রধানদের এমন যৌথ সাংবাদিক বৈঠক ‘নজিরবিহীন’। ওয়েস্টমিনিস্টারের টেমস হাউসে আয়োজিত ওই কর্মসূচিতে রে বলেন, ‘‘আমরা দেখতে পাচ্ছি চিন সরকার ধারাবাহিকভাবে আমাদের অর্থনৈতিক এবং জাতীয় নিরাপত্তার জন্য সবচেয়ে গভীর দীর্ঘমেয়াদি বিপদ সৃষ্টি করেছে। এখন বিষয়টি আমরা দু’দেশ মিলে (আমেরিকা এবং ব্রিটেন) ইউরোপ এবং বিশ্বের অন্য মিত্র দেশগুলিকে বোঝানোর চেষ্টা করছি।’’

তবে বেজিংয়ের এই অনৈতিক আগ্রাসনের জন্য শি চিনফিং সরকার এবং চিনা কমিউনিস্ট পার্টিকেই দোষারোপ করেছেন এফবিআই প্রধান। তাঁর কথায়, ‘‘আমরা চিনের জনগণকে নিশানা করতে চাই না। তাঁরা নিজেরাই নানা অনিয়ম এবং নিপীড়নের শিকার।’’ আমেরিকা এবং ইউরোপের শিল্প ও তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলিকে চিনের সঙ্গে ব্যবসা করার ‘ঝুঁকি’ সম্পর্কে সতর্ক করে তিনি বলেন, ‘‘যে কোনও সময় আপনাদের প্রযুক্তি চুরি হতে পারে।’’


অন্য দিকে, যৌথ সাংবাদিক বৈঠকে ব্রিটিশ গোয়েন্দা প্রধান অভিযোগ করেন, কমিউনিস্ট পার্টি পরিচালিত একদলীয় চিনের শাসকেরা আমেরিকা এবং ইউরোপের গণতান্ত্রিক কাঠামো এবং মুক্ত সংবাদমাধ্যমের সুযোগ নিয়ে অনৈতিক ভাবে নিজেদের স্বার্থরক্ষা করতে তৎপর।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.