Agnipath Scheme Details: অগ্নিপথ নিয়ে বিতর্ক কেন? অগ্নিবীরদের জন্য কী পরিকল্পনা তিন বাহিনীর, জানুন বিশদে

1/7যেদিন থেকে নাম নথিভুক্ত করা হবে, সেদিন থেকেই চাকরির মেয়াদ শুরু হবে অগ্নিবীরদের। অগ্নিবীরদের পদ অন্য সবার থেকে আলাদা হবে। অগ্নিপথ প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত জওয়ানদের সময়ে সময়ে লিখিত এবং শারীরিক পরীক্ষা দিতে হবে। এই পরীক্ষার ফলাফলের উপরই নির্ভর করবে সেনায় তাদের ভবিষ্যত।

2/7আগেই সেনার তরফে ঘোষণা করা হয়, অগ্নিবীর প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত সেনা কর্মীদের মধ্যে থেকে ২৫ শতাংশকে স্থায়ী নিয়োগ দেওয়া হবে। সেই ২৫ শতাংশ বেছে নিতেই এই সময়ে সময়ে পরীক্ষা নেওয়া হবে। এদিকে অফিসিয়াল সিক্রেট অ্যাক্টের অধীনে সেনার কোনও গোপন তথ্য ফাঁস করতে পারবেন না কোনও অগ্নিবীর। চার বছরের সেবা শেষে অগ্নিবীরদের সেবা নিধি প্যাকেজ দেওয়া হবে।

3/7উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার তিন বাহিনীর প্রধান যৌথ সাংবাদিক সম্মেলন করে অগ্নিপথ প্রকল্পের ঘোষণা করেছিলেন। সেই সময় বলা হয়েছিল, যে ‘অগ্নিবীর’-দের নিয়োগ করা হবে, তাঁদের মধ্যে সর্বাধিক ২৫ শতাংশ প্রার্থী বাহিনীতে থাকবেন। প্রতিটি ব্যাচ থেকে সামরিক বাহিনীর ‘রেগুলার ক্যাডারে’ সর্বাধিক ২৫ শতাংশ ‘অগ্নিবীর’-কে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

4/7১৭ বছর ৬ মাস থেকে ২১ বছর বয়সিরা অগ্নিবীর প্রকল্পের মাধ্যমে আবেদন জানাতে পারবেন। যদিও প্রথম বছরের জন্য অগ্নিবীর প্রকল্পে আবেদন জানানোর ঊর্ধ্বসীমা ২৩ বছর। চাকরির মেয়াদ শেষ হলে’সেবা নিধি প্যাকেজ’-র আওতায় ১১.৭১ লাখ টাকাদেওয়া হবে অগ্নিবীরদের। চার বছরের চাকরি শেষে অগ্নিবীরদের একটি স্কিল সার্টিফিকেট দেওয়া হবে। তাতে ওই প্রার্থীর কী কী দক্ষতা আছে,সেই সংক্রান্ত তথ্য দেওযা থাকবে।

5/7আগামী মাস থেকে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু হবে অগ্নিপথ প্ররকল্পেপ জন্য। অগ্নিবীর (জেনারেল ডিউটি) (অল আর্মস),অগ্নিবীর (টেক),অগ্নিবীর টেক (এভিএন অ্যান্ড এএমএন এগজামিনার),অগ্নিবীর ক্লার্ক/স্টোর কিপার টেকনিকাল (অল আর্মস),অগ্নিবীর ট্রেডসম্যান (অল আর্মস)পদে নিয়োগ করা হবে চার বছরের জন্য।

6/7প্রথম বছরে অগ্নিবীরদের মাসিক বেতন হবে ৩০,০০০ টাকা। হাতে পাবেন ২১,০০০ টাকা। ৩০ শতাংশ অর্থ (৯,০০০ টাকা) সংশ্লিষ্ট ‘অগ্নিবীর’-র তহবিলে জমা পড়বে। সঙ্গে ৯,০০০ টাকা দেবে ভারত সরকার। দ্বিতীয় বছর মাসিক বেতন ৩৩,০০০ টাকা। হাতে পাবেন ২৩,১০০ টাকা। ৯,৯০০ টাকা সংশ্লিষ্ট ‘অগ্নিবীর’-র তহবিলে জমা পড়বে। সঙ্গে ৯,৯০০ টাকা দেবে ভারত সরকার। তৃতীয় বছর মাসিক বেতন ৩৬,৫০০ টাকা। হাতে পাবেন ২৫,৫৮০ টাকা। ১০,৯৫০ টাকা সংশ্লিষ্ট ‘অগ্নিবীর’-র তহবিলে জমা পড়বে। সঙ্গে ১০,৯৫০ টাকা দেবে ভারত সরকার। চতুর্থ বছর মাসিক বেতন ৪০,০০০ টাকা। হাতে পাবেন ২৮,০০০ টাকা। ১২,০০০ টাকা সংশ্লিষ্ট ‘অগ্নিবীর’-র তহবিলে জমা পড়বে। সঙ্গে ১২,০০০ টাকা দেবে ভারত সরকার।

7/7চার বছরের চাকরি শেষে অগ্নিবীরদের একটি স্কিল সার্টিফিকেট দেওয়া হবে। তাতে ওই প্রার্থীর কী কী দক্ষতা আছে, কতটা দক্ষ তিনি, সেই সংক্রান্ত তথ্য দেওযা থাকবে। যে অগ্নিবীররা দশম শ্রেণির উত্তীর্ণ হওয়ার পর কাজে যোগ দেবেন, তাঁদের দ্বাদশ শ্রেণির সমতুল্য একটি শংসাপত্র দেওয়া হবে। চাকরির চার বছর পর দেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.