কমেডিয়ান থেকে রাষ্ট্রনেতা! প্রেসিডেন্টের ভূমিকায় অভিনয় করে, লোক হাসিয়ে, ভোটে জিতে গেলেন অভিনেতা

 মঞ্চের পর্দা থেকে বাস্তবের পর্দায়। এ যেন স্বপ্ন সত্যি হওয়ার চিত্রনাট্য লিখেছেন ইউক্রেনের হবু প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কি! কয়েক মাস আগেও ‘কমেডিয়ান’ হিসেবে যাঁকে চিনত গোটা ইউক্রেন, যাঁর কাজ ছিল প্রেসিডেন্টের ভূমিকায় অভিনয় করে দর্শকদের আনন্দ দেওয়া, সেই মানুষটিই এবার হতে চলেেন সত্যিকারের প্রেসিডেন্ট!

লোক হাসিয়েই আনন্দ পেতেন ইউক্রেনের এই কৌতুক অভিনেতা। তিনি হয়তো স্বপ্নেও ভাবেননি, এক দিন সত্যি সত্যিই প্রেসিডেন্টের পদে বসার সুযোগ পাবেন। তবে তিনি না ভাবলে কী হবে, বাস্তবে এবার সেটাই হতে চলেছে।

কৌতুক মঞ্চে শুধু নয় এবার বাস্তবেও ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন ভোলোদিমির জেলেনস্কি। ‘সার্ভেন্ট অফ দ্য পিপল’, নামের হাস্যরসাত্মক একটি টিভি শো-তে প্রেসিডেন্টের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন জেলেনস্কি। সেখানে দেখা গেছে, দুর্নীতির বিরুদ্ধে দীর্ঘ লড়াইয়ের পরে এক নাগরিক দেশের সর্বোচ্চ পদে বসেছেন। সেই গল্পই যেন সত্যি হচ্ছে এবার।

রবিবার ইউক্রেনের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের চূড়ান্ত পর্যায়ের ভোটগ্রহণ হয়েছে। এখনও পর্যন্ত পাওয়া ফলাফল অনুযায়ী ভোলোদিমির ৭৬ শতাংশের বেশি ভোট পেয়ে গিয়েছেন। বিদায়ী প্রেসিডেন্ট পেট্রো পেরোশচেঙ্কো পেয়েছেন মাত্র ২৪ শতাংশ ভোট। মার্চের শেষ সপ্তাহে ইউক্রেনে মোট ৩৯ জন প্রেসিডেন্ট প্রার্থীকে নিয়ে প্রথম দফা ভোট অনুষ্ঠিত হয়। এতে কেউই একক ভাবে ৫০ শতাংশ বা তার বেশি ভোট না পাওয়ায় সব চেয়ে বেশি ভোট পাওয়া দুই প্রার্থী জেলেনস্কি ও পেট্রোকে নিয়ে রবিবার চূড়ান্ত ভোটাভুটি হয়। আর তাতেই জয়জয়কার কৌতুকাভিনেতার।

জেলেনস্কির এই জয় এক দিকে যেমন ইউক্রেনবাসীকে আমোদিত করছে, অন্য দিকে আবার ভয়ও বাড়াচ্ছে। পুরোদস্তুর অভিনেতা জেলেনস্কি কি আদৌ দেশের জটিল রাজনৈতিক পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে পারবেন? একদিকে অন্তর্দ্বন্দ্ব, দেশের অভ্যন্তরে বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠীর বিদ্রোহ, অন্য দিকে মস্কো থেকে পুতিনের রক্তচক্ষু। এই সব কিছু সামলাতে পারবেন তো জেলেনস্কি? আশঙ্কায় ভুগছেন ইউক্রেনবাসীর একাংশ। আবার, জেলেনস্কির প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়া নিয়ে রসিকতাও কম হচ্ছে না নেট-দুনিয়ায়।


Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.