ভারতের সাথে দ্বিপাক্ষিয় সম্পর্কের ৭০ বছর পূর্তিতে মঙ্গলবার ইন্দোনেশিয়া রামায়ণের সন্মানে বিশেষ স্মারক ডাক টিকিট জারি করে। আপনাদের জানিয়ে রাখি, ইন্দোনেশিয়া বিশ্বের সবথেকে বড় মুসলিম প্রধান দেশ।

ভারতীয় দূতাবাসের তরফ থেকে জারি করা বয়ান অনুযায়ী, এই স্টাম্পের ডিজাইন ইন্দোনেশিয়ার বিখ্যাত মূর্তিকার নিউমন নুয়ার্তা ( Nyoman Nuarta) করেছেন। ওই স্ট্যাম্পে রামায়ণের ঘটনা অঙ্কিত আছে, যেখানে জটায়ু সীতা মাতাকে বাঁচানোর জন্য বীরত্বের সাথে লড়ছে।

ভারতীয় দূতাবাসের তরফ থেকে জারি করা বয়ান অনুযায়ী, বিশেষ স্বাক্ষর করা এই ডাক টিকিটকে প্রদর্শনের জন্য জাকার্তার ফিলেটলি মিউজিয়ামে রাখা হবে।

ভারতের সাথে সম্পর্কের ৭০ বছর পূর্তিতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভারতের রাজদূত প্রদীপ কুমার রাওয়াত আর ইন্দোনেশিয়ার উপ-বিদেশ মন্ত্রী আব্দুররহমান মোহম্মদ উপ্সস্থিত ছিলেন।

ওই অনুষ্ঠানে রাওয়াত বলেন, দুই দেশের মধ্যে বিগত ৭০ বছরে সম্পর্ক মজবুত হয়েছে, আর ২০১৮ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ইন্দোনেশিয়ার সফর এই সুসম্পর্ককে আরও মধুর করে তুলেছেন।অনুষ্ঠানে ১৯৪৯-২০১৯ পর্যন্ত ভারত আর ইন্দোনেশিয়ার মধ্যে সম্পর্কের কিছু ঐতিহাসিক মুহূর্তের ছবি প্রদর্শন করা হয়। তারপর ভারতের তরফ থেকে একটি সাংস্কৃতিক নৃত্য প্রদর্শন করা হয়।

৯০ শতাংশ মুসলিম জনসংখ্যার দেশ ইন্দোনেশিয়ায় রামায়ণের খুব গুরুত্ব আছে। ইন্দোনেশিয়ার সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ রামকথা। সেখানে রামায়ণকে রামায়ণ কভিন (কবিতা) বলা হয়। ইন্দোনেশিয়ায় স্কুলে পাঠ পড়ানর জন্য রামায়ণের চরিত্রের ব্যাবহার করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.