সিনিয়র মাদ্রাসা স্কুলের ভেতর থেকে পাওয়া গেল অবৈধ অস্ত্র! গ্রেফতার শিক্ষক মৌলানা আলী আকবর হোসেন।

খুবই সেকুলার দেশ হিসেবে পরিচিত শ্রীলঙ্কায় ইস্তারের উৎসবে যেভাবে ভীষনতম সিরিয়াল বোম ব্লাস্ট হয়েছে তা পুরো বিশ্বকে সাবধান করে দিয়েছে। শ্রীলঙ্কায় আতঙ্কবাদী হামলায় ৩০০ এর বেশি লোক মারা গেছে। অবশ্য এর পর শ্রীলঙ্কা যে পদক্ষেপ উঠিয়েছে তা কেউ ভাবতেও পারেনি। শ্রীলঙ্কার সরকার ইসলামিক কট্টরতার বিরূদ্ধে কড়া সিদ্ধান্ত নিয়ে সমস্থ মসজিদে সার্চ অপারেশন শুরু করেছে। একইসাথে শ্রীলঙ্কার সরকার বোরখার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। শুধু এই নয়, ২০০ মৌলানা সহ ৬০০ বিদেশিকে দেশ থেকে বের করে দিয়েছে।

শ্রীলঙ্কায় সার্চ অপারেশন চলাকালীন এক মসজিদ থেকে আতঙ্কবাদীদের আত্মঘাতী জেকেট পাওয়া গেছে। যার পর শ্রীলঙ্কায় সার্চ অপারেশনের গতি আরো বৃদ্ধি করা হয়েছে। শ্রীলঙ্কার ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ভারতের এক মসজিদ থেকে সন্দেহজনক বস্তু পাওয়া গেছে। সুদর্শন নিউজ সূত্রে খবর অনুযায়ী, অসমের নলবাড়ি জেলার মুকাল্মুয়া থানার অন্তর্গত এলাকার এক মসজিদের শিক্ষকের কাছে অবৈধ অস্ত্র পাওয়া গেছে।

মাদ্রসার শিক্ষক আকবর হোসেনের কাছে থেকে অবৈধ অস্ত্র পাওয়া গেছে। পুলিশ মসজিদের ওই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে। পলিশের কাছে খবর ছিল যে, মাদ্রাসায় শিক্ষক অবৈধ অস্ত্র নিয়ে রয়েছে। যারপর পুলিশ মাদ্রাসায় ছাপা মারে এবং ওই শিক্ষকক মৌলানা আলী আকবর হোসেনকে গ্রেফতার করে। মাদ্রসাটি সিনিয়র মাদ্রাসা স্কুল নামে পরিচিত।আশঙ্কা করা হচ্ছে যে, শিক্ষক জিহাদি সংগঠনগুলির সাথে যুক্ত রয়েছে। আপাতত পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে। ঘটনার পর এলাকার বাকি মাদ্রসা স্কুলগুলিতে সার্চ অপারেশন চালু করার দাবি উঠেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.