শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত ইয়াস, প্রবল বৃষ্টি চাঁদিপুর ও দিঘায়

স্থলভাগ থেকে ক্রমেই দূরত্ব কমছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের। শক্তি বাড়িয়ে অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে ‘ইয়াস’। মঙ্গলবার সকাল ৫.৩০ মিনিটে ইয়াসের অবস্থান ছিল পারাদ্বীপ থেকে ৩২০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পূর্বে, ওই সময়ে ইয়াসের অবস্থান ছিল ওডিশার বালেশ্বর থেকে ৪৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পূর্বে। আরও শক্তি বাড়িয়ে ধীরে ধীরে উত্তর-উত্তর পশ্চিম অভিমুখে অগ্রসর হয়ে ২৬ মে দুপুরে অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিয়ে উত্তর ওডিশা উপকূল অতিক্রম করবে ইয়াস। অর্থাৎ বুধবার দুপুরেই অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় রূপে ওডিশার পারাদ্বীপ ও পশ্চিমবঙ্গের দিঘার মধ্যে ওডিশার বালেশ্বরের কাছ দিয়েই ইয়াস অতিক্রম করবে।
ইয়াসের প্রভাবে সোমবার থেকেই বৃষ্টি চলছে ওডিশা ও পশ্চিমবঙ্গের। মঙ্গলবার ভারী বৃষ্টিপাত হয় ওডিশার চাঁদিপুরে, ভুবনেশ্বরে। ভারী বৃষ্টি হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের দিঘাতেও। ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড হতে পারে ওডিশার বালেশ্বর, তাই মঙ্গলবারও বালেশ্বর থেকে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়েছে মানুষজনকে। ইয়াসের প্রভাবে লন্ডভন্ড হতে পারে পশ্চিমবঙ্গও। পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী জেলাগুলি অর্থাৎ পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, কলকাতা, হাওড়া, হুগলিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.