সীমান্তে মিলল বাংলাদেশির লাশ, গরু চুরি করতে এসে গণপ্রহারের শিকার বলে সন্দেহ

ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে সন্দেহজনক এক ব্যক্তির মৃতদেহ মিলল। ঘটনাটি ত্রিপুরার সিপাহিজালা জেলার সোনামুড়ার কমলনগর এলাকায় ঘটে। মৃতদেহ উদ্ধারকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে সেই এলাকায়। প্রাথমিক অনুমান, মৃত ব্যক্তি গরু চোরাচালানকারী হতে পারে। এই বিষয়ে রবিবার পুলিশ জানায়, সিপাহিজালা জেলার সোনামুড়ার কমলনগর এলাকায় একজন সন্দেহভাজন গরু চোরাচালানকারীকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে। মৃত ব্যক্তির পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি। আজ লাশের ময়নাতদন্ত করা হবে।

পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে বলা হয়েছে, শুক্রবার গভীর রাতে তিনজন সন্দেহভাজন বাংলাদেশি নাগরিক গ্রামে এসে লিটন পাল নামে এক স্থানীয় ব্যক্তির বাড়ি থেকে গরু চুরির চেষ্টা করে। লিটন পাল তাদের ধরার চেষ্টা করলে সন্দেহভাজনদের মধ্যে একজন তাকে অস্ত্র দিয়ে আক্রমণ করে জখম করে। তবে তাদের মধ্যে দুইজন ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয় এবং তৃতীয়জনকে আটক করে স্থানীয় কয়েকজন। পরের দিন সকালে, ঘটনাস্থল থেকে প্রায় ৫০০ মিটার দূরে সন্দেহভাজন গরু চোরাচালানের লাশ পাওয়া যায়।ট্রেন্ডিং স্টোরিজ

সোনামুড়া থানার পুলিশ এই বিষয়ে বলে, ‘আমরা একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা নথিভুক্ত করে তদন্ত শুরু করেছি। একই সঙ্গে লিটন পালের পরিবারের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা পৃথক মামলা গ্রহণ করেছি।’ তবে, পুলিশ সন্দেহভাজন গরু চোরাচালানকারীর মৃত্যুর কারণ হিসাবে গণধোলাইয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেনি। এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে, তাদের জবাব, বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.