Covid-19: ২৩ জানুয়ারি নাগাদ পিক-এ পৌঁছতে পারে থার্ড ওয়েভ

1/5আগামী ২৩ জানুয়ারি পিকে পৌঁছতে পারে কোভিডের তৃতীয় ঢেউ। করোনভাইরাস পরিস্থিতির সর্বশেষ বিশ্লেষণে এমনটাই মত বিশেষজ্ঞদের। তাঁদের অনুমান পিকে পৌঁছলে দেশে প্রতিদিন প্রায় ৭.২ লক্ষ সংক্রমণ ধরা পড়তে পারে। ফাইল ছবি : পিটিআই   (PTI)

কোভিড-এর ট্র্যাজেক্টোরি চার্টের অন্যতম নির্দেশক হল 'সূত্র মডেল'। সেটা অনুযায়ী হিসাব করে দেখা যাচ্ছে, পিক-এ পৌঁছলে ৪ লক্ষের আশেপাশি দৈনিক সংক্রমণ হতে পারে। এমনটাই জানালেন আইআইটি-কানপুরের বিজ্ঞানী মণীন্দ্র আগরওয়াল, সূত্র কনসোর্টিয়ামের অন্যতম গবেষক। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
2/5কোভিড-এর ট্র্যাজেক্টোরি চার্টের অন্যতম নির্দেশক হল ‘সূত্র মডেল’। সেটা অনুযায়ী হিসাব করে দেখা যাচ্ছে, পিক-এ পৌঁছলে ৪ লক্ষের আশেপাশি দৈনিক সংক্রমণ হতে পারে। এমনটাই জানালেন আইআইটি-কানপুরের বিজ্ঞানী মণীন্দ্র আগরওয়াল, সূত্র কনসোর্টিয়ামের অন্যতম গবেষক। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
তিনি জানান, দুটি কারণে সম্ভবত সারাদেশে কোভিড সংক্রমণের ধারা উল্লেখযোগ্যভাবে পরিবর্তিত হয়েছে। প্রথমত, কম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্পন্নদের মধ্যে ওমিক্রনের বিস্তার হ্রাস পেয়েছে। কারণ সেই জনসংখ্যার গোষ্ঠীর ইতিমধ্যেই সংক্রমণ হয়ে গিয়েছে। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
3/5তিনি জানান, দুটি কারণে সম্ভবত সারাদেশে কোভিড সংক্রমণের ধারা উল্লেখযোগ্যভাবে পরিবর্তিত হয়েছে। প্রথমত, কম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্পন্নদের মধ্যে ওমিক্রনের বিস্তার হ্রাস পেয়েছে। কারণ সেই জনসংখ্যার গোষ্ঠীর ইতিমধ্যেই সংক্রমণ হয়ে গিয়েছে। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
দ্বিতীয়ত, এখন যাঁদের সংক্রমণ হচ্ছে, সেভাবে বাড়াবাড়ি উপসর্গ না হলে টেস্ট করাচ্ছেন না। বরং এমনিই সাধারণ চিকিত্সা অনুসরণ করছেন। ফলে কোভিড হলেও, তা টেস্ট না হওয়ায় খাতায়কলমে হিসাব আসছে না। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
4/5দ্বিতীয়ত, এখন যাঁদের সংক্রমণ হচ্ছে, সেভাবে বাড়াবাড়ি উপসর্গ না হলে টেস্ট করাচ্ছেন না। বরং এমনিই সাধারণ চিকিত্সা অনুসরণ করছেন। ফলে কোভিড হলেও, তা টেস্ট না হওয়ায় খাতায়কলমে হিসাব আসছে না। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
'ওমিক্রন যখন ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছিল, তখন অনেকে উদ্বেগে ছিলেন। কিন্তু গত কয়েক সপ্তাহে বা তারও বেশি সময়ে ছবিটা বদলে গিয়েছে। প্রায় সব স্থানের লোকেরাই বুঝেছেন যে এটি শুধুমাত্র হালকা সংক্রমণ ঘটায়। পরীক্ষা না করেও সাধারণ চিকিত্সাতেই ব্যাপারটা মিটে যাচ্ছে,' তিনি যোগ করেন। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
5/5‘ওমিক্রন যখন ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছিল, তখন অনেকে উদ্বেগে ছিলেন। কিন্তু গত কয়েক সপ্তাহে বা তারও বেশি সময়ে ছবিটা বদলে গিয়েছে। প্রায় সব স্থানের লোকেরাই বুঝেছেন যে এটি শুধুমাত্র হালকা সংক্রমণ ঘটায়। পরীক্ষা না করেও সাধারণ চিকিত্সাতেই ব্যাপারটা মিটে যাচ্ছে,’ তিনি যোগ করেন। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.