সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে চাকরি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর একটি বিতর্কিত মন্তব্য। এর আগেও উনি চাকরি না দিতে পেরে কাউকে চায়ের দোকান তো কাউকে চপের দোকান খোলার পরামর্শ দিয়েছিলেন। সেরকমই ওনার একটি মন্তব্য এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় চরম ভাইরাল হচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় যেই মন্তব্যটি ভাইরাল হচ্ছে, তাঁর সাথে একটি পেপার কাটিংও জুড়ে দেওয়া হয়েছে। ওই পেপার কাটিংয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতার বক্তব্য স্পষ্ট করে তুলে ধরা হয়েছে। যদিও পেপার কাটিংটি অনেক পুরানো। আর এই ভোটের বাজারে মুখ্যমন্ত্রীর পুরানো পরামর্শ সবাইকে মনে করিয়ে দিতেই সেটিকে ভাইরাল করা হচ্ছে।

এর আগে মমতা ব্যানার্জী দাবি করে বলেছিলেন যে, তিনি এক কোটি কর্মসংস্থান গড়ে তুলেছেন এই বাংলায়। কিন্তু এদিক ওদিক নজর ঘোরালে শুধু দেখা যায় দিনের পর দিন একের পর এক কারখানা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। নতুন করে কোন শিল্পও আসছে না রাজ্যে। তাহলে এক কোটি মানুষকে উনি কোথায় চাকরি দিলেন?

চাকরি বলতে, চারিদিকে শুধু সিভিক ভলান্টিয়ার দের দেখা যায়! যাদের এখন দলের ক্যাডার হিসেবে ব্যাবহার করছে তৃণমূল। তবে ওই পেপার কাটিং এর তদন্ত করাতে দেখা গেলো যে, ওই পরামর্শ তিনি ২০১০ সালে দিয়েছিলেন। আর ওই পেপার কাটিং ২০১২ সালের ১৫ই এপ্রিল আনন্দবাজার পত্রিকায় ছাপা হয়েছিল।

তবে ২০১২ সালের পেপার কাটিং এখন ভাইরাল কেন হচ্ছে? এই ঘটনার তদন্ত করে আমরা পেলাম যে, ফেসবুকে সবাইকে প্রতি দিনই গত বছর তাঁরা ওই দিনে কি করেছিলে, সেটা দেখায়। যেহেতু আজ এপ্রিল মাসের ১৭ তারিখ, তাই আজ থেকে পাঁচ বছর আগে এপ্রিলের ১৫ তারিখে কেউ হয়ত ওই পেপার কাটিং তাঁর ফেসবুক অ্যাকাউন্টে আপলোড করেছিল। আর ফেসবুক সেটার নোটিফিকেশন এখন দেখানোতে, সে আবার ভোটের বাজারে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর পুরানো পরামর্শ ভাইরাল করে দিলো।


Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.