ফের ভাসবে শহর, সন্ধের পরেই ঝড়-বিদ্যুৎ নিয়ে হাজির হবে বৃষ্টি

ফের ভাসবে শহর! বৃহস্পতিবার সন্ধ্যের আচমকা ঝড়বৃষ্টি অনেকটাই স্বস্তি দিয়েছে শহরবাসীকে। আজ, শুক্রবারও সন্ধ্যার দিকে ফের বজ্র-বিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

গত কয়েক দিন ধরেই রোদের তেজে নাভিশ্বাস ছুটেছিল মানুষজনের। আচমকাই বেড়ে গিয়েছিল গরমের প্রকোপ। বৃষ্টির কারণে তাপমাত্রা কিছুটা নেমেছে গত কাল। কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের ইতিউতি বৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবারও সেই সম্ভাবনা অনেকটাই বেশি। কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গে আকাশ মেঘলা থাকবে। ঝোড়ো বাতাস নিয়ে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিপাতের সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। আবহবিদরা জানিয়েছেন, পরপর দু’টি পশ্চিমি ঝঞ্ঝা রয়েছে। তাই শুক্রবার তো বটেই, সপ্তাহের শেষ ও নতুন সপ্তাহের শুরুতেও ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকবে।

সূত্রের খবর, বৃষ্টির সঙ্গে বইতে পারে জোর গতিতে ঝোড়ো হাওয়াও। এ দিন সকালে কলকাতার সর্বোচ্চ আর্দ্রতার পরিমাণ ছিল ৯২ শতাংশ, সর্বনিম্ন ২৮ শতাংশ। এই আর্দ্রতার জেরেই ভারী মেঘ জমছে আকাশে। শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের চেয়ে এক ডিগ্রি বেশি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬ ডিগ্রি থেকে কমে ২৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, হয়েছে। যা স্বাভাবিকের চেয়ে এক ডিগ্রি বেশি। গত ২৪ ঘন্টায় ১.৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে শহরে।

আজ ফের বৃষ্টি হলে এই সর্বনিম্ন তাপমাত্রা আরও কমতে পারে। ফলে সকালের দিকে কয়েক দিন ঠান্ডা ভাব থাকবে। পূর্বাভাস অনুসারে চলতি সপ্তাহে কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩৪ ডিগ্রির কাছাকাছি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৪ ডিগ্রির আশেপাশেই।

তবে তাপমাত্রা বিশেষ ভাবে বাড়তে পারে উপকূলবর্তী জেলায়। উত্তরবঙ্গের কিছু কিছু জেলাতেও তাপমাত্রা বাড়বে। আবার কিছু অঞ্চলে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নিচেই থাকবে। তবে তাপমাত্রা বাড়লেও, বিকেলের দিকে বৃষ্টির সম্ভাবনা রাজ্যের সমস্ত জেলাতেই রয়েছে।

আশঙ্কা করা হচ্ছে, আজ শুক্রবারওবিকেলের পরেই আকাশ কালো করে ঘনাবে ঝড় ও বৃষ্টি। মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যাওয়ার ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.