এবার ফণী নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। দুর্যোগ মোকাবিলায় একাধিক দফতরের মন্ত্রী ও আধিকারিকদের সঙ্গে আলোচনা করেন তিনি। সংশ্লিষ্ট দফতরগুলিকে একাধিক নির্দেশ দিয়েছেন বলেও জানা গিয়েছে সূত্র মারফৎ।

এদিকে ওডিশা সরকারের বিশেষ বাসে পুরী থেকে একে একে চেপে ঘরে ফিরছেন রাজ্যের পর্যটকরা। দীঘায় বুকিং নেওয়া বন্ধ হয়ে গিয়েছে। আজকের পর সমস্ত পর্যটকদের ফিরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশপাশি নবান্ন সূত্রে খবর, আগামীকাল থেকে রাজ্যের সমস্ত সরকারি স্কুল বন্ধ। অন্যদিকে কলকাতা পুরসভা একাধিক নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দুর্বল বাড়িগুলি থেকে স্থানীয় স্কুলে লোক সরানোর কাজ শুরু হয়েছে। রাজ্যে এসে পড়েছে এনডিআরএফ ও জাতীয় বিপর্যয় বোকাবিলা টিমের সেকেন্ড ব্যাটিলিয়ন।

ঘূর্ণিঝড় ফণীর জেরে প্রথমে গোপালপুর, পরে পুরীতে বৃষ্টি শুরু হয়, এবার কলকাতাতেও শুরু হল বৃষ্টি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.