VIDEO: মমতার রাজ্যে ফের উঠলো ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ” স্লোগান! প্রতিবাদ করায় জ্বলে উঠলো এলাকা

ফের আগুন জ্বলল বাংলায়। তবে এবার ভোটের জন্য না। এবার জ্বলল ভারতের সবথেকে বড় শত্রু দেশ পাকিস্তানের সমর্থন করায়। ঘটনাটি ঘটেছে নদীয়ার ধুবুলিয়ায় (Dhubulia)। ঘটনার সুত্রপাত বুধবার সকাল ১১ টা নাগাদ। নদীয়ার ধুবুলিয়ার একটি চায়ের দোকানে তর্ক চলছিল দুই গোষ্ঠীর মধ্যে। একদল ছিল TMC সমর্থিত মমতা ব্যানার্জীর সমর্থক। আরেকদল BJP এর।

TMC-এর  সমর্থকেরা মমতা ব্যানার্জীর উন্নয়নের গল্প শোনাচ্ছিল। BJP এর সমর্থকেরা মোদীর বিকাশের কথা বলছিল। একে অপরকে উন্নয়নের খতিয়ান শোনাতে শোনাতে লেগে যায় তুমুল তর্কাতর্কি। তর্কাতর্কি এমন পর্যায়ে চলে যায় যে, শেষে সেটি হাতাহাতিতে পরিণত হয়। আর সেই সময়েই TMC-এর  সমর্থকদের মধ্যে একজন ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ” স্লোগান দেয়।

পাকিস্তানের গুণগান করার পর আরও তেঁতে ওঠে BJP এর সমর্থকেরা। BJP এর সমর্থকদের তরফ থেকে প্রতিবাদ করা হলে, তাঁদের মারধর করে TMC-এর  সমর্থকেরা। তারপরেই রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে ধুবুলিয়া (Dhubulia) । স্থানীয় সূত্র অনুযায়ী, পাকিস্তান সমর্থকেরা শুরু করে দেয় বোমা বাজি। বোম আর গুলির আওয়াজে কেঁপে ওঠে এলাকা।

পাকিস্তান সমর্থকদের দাপাদাপিতে গুরুতর জখম হয় চারজন স্থানীয় বাসিন্দা। আহত হিন্দুদের কৃষ্ণনগর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানেই তাঁরা সমস্ত ঘটনার কথা খুলে বলেন।

এই ঘটনার প্রতিবাদে BJP এর সমর্থকেরা সন্ধ্যে থেকে জাতীয় সড়ক অবরোধ করে। এই ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশ বাহিনী।

সকাল থেকে এলাকা উত্তপ্ত থাকার পর দুপুরে পুলিশ বাহিনীর তৎপরতায় পরিস্থিতি কিছুটা ঠিক হয়। সন্ধ্যে বেলায় জাতীয় সড়ক অবরোধ হওয়ার পর, রাত ১১ টা নাগাদ পুলিশের অনুরোধে তোলা হয় অবরোধ। অবরোধ উঠলেও এলাকা এখনো থমথমে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে এলাকায় মোতায়েন আছে বিশাল পুলিশ বাহিনী।

সুত্র মারফত ধুবুলিয়া কাণ্ডের আরও কিছু ভিডিও সামনে এল।বিস্তারিত জানতে নিচে দেওয়া এই ভিডিওগুলি দেখুন।

https://www.facebook.com/uddav.halder.9/videos/111886156687484/
https://www.facebook.com/uddav.halder.9/videos/111886210020812/
https://www.facebook.com/uddav.halder.9/videos/111886253354141/

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.