বুধবার বাংলায় জোড়া সভা সারবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রথমটি উত্তরবঙ্গে। এবং দ্বিতীয়টি কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে। বাংলায় পা রাখার আগে এ দিন সকালে বাংলায় টুইট করলেন ‘চৌকিদার নরেন্দ্র মোদী।’ একটি নয়, সভার সংখ্যা মিলিয়ে জোড়া টুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

কী লিখলেন টুইটে?

প্রথম টুইটে মোদী লিখেছেন, “পশ্চিম বাংলার প্রিয় বোনেরা ও ভাইয়েরা। আমি আজ আপনাদের রাজ্যে আসছি। আমি শিলিগুড়ি এবং কলকাতাতে জনসভায় আপনাদের সামনে কিছু বক্তব্য রাখতে চাই।” এবং দ্বিতীয়টিতে লিখেছেন, “পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে বিজেপির জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পেয়েছে। মানুষের দৃঢ় ভরসা , রাজ্যের মানুষের সমস্যার সমাধান করতে ও স্বচ্ছ সরকার গড়তে শুধুমাত্র আমাদের দল পারে।”

এর আগেও ঠাকুরনগর এবং জলপাইগুড়ির সভায় প্রধানমন্ত্রীকে দেখা গিয়েছিল বাংলায় বক্তৃতার মুখবন্ধ করতে। এ বার বাংলায় টুইট করলেন তিনি। এমনিতেই  বিজেপি-কে বাংলা ও বাঙালি বিদ্বেষী বলে প্রতিদিন তোপ দাগছেন বাংলার শাসকদলের শীর্ষ নেতারা। অসমে জাতীয় নাগরিক পঞ্জিকরণের সময় থেকেই গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে বাঙালি বিদ্বেষের অভিযোগ করা শুরু করেছে তৃণমূল। পর্যবেক্ষকদের মতে, সবটা বুঝেই হয়তো এ দিন টুইটে বাংলা লিখেছেন মোদী।

ফেব্রুয়ারি মাসে বাংলায় আসার আগে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী তথা হিন্দুত্বের পোস্টার বয় যোগী আদিত্যনাথও বাংলায় টুইট করেছিলেন। তবে সে বার রামকৃষ্ণ পরমহংসদেবের নামের আগে স্বামী যুক্ত করে সমালোচিত হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু মোদীর টুইটের ক্ষেত্রে এ সব কিছুই নেই। এ দিন সকালে অরুণাচলপ্রদেশে নির্বাচনী প্রচার সারেন মোদী। উত্তর-পূর্নের এই রাজ্য থেকেই বাগডোগরায় এসে নামবেন তিনি। তারপর সেখান থেকে যাবেন শিলিগুড়ি জলপাইগুড়ি উন্নয়ন পর্ষদের মাঠের জনসভায়। শিলিগুড়ির সভা শেষ করে কলকাতায় আসবেন  প্রধানমন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.