ভাটপাড়ার গোলমালের জন্য দায়ী মমতা, অভিযোগ মুকুলের, মদনের মুখে বহিরাগত তত্ত্ব

লোকসভা ও বিধানসভা উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভাটপাড়া, কাঁকিনাড়া এলাকায় শুরু হয় উত্তেজনা। তার রেশ এখনও কাটেনি। গুলি, বোমা, মৃত্যুতে বৃহস্পতিবার ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে উত্তর ২৪ পরগনার শিল্পাঞ্চল। আর এই সব গোলমালের জন্য মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই দায়ী করলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। অন্য দিকে, তৃণমূল কংগ্রেস নেতা মদন মিত্রের দাবি, ভাটপাড়ায় গোটা গোলমালের পিছনে রয়েছে বিজেপির পরিকল্পনা। মূলত বিহার ও উত্তরপ্রদেশ থেকে লোক এনে গোলমাল করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ভাটপাড়া। অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে ভাটপাড়ার পরিস্থিতি। মৃত্যু হয় তিন যুবকের। আহত আরও চারজন। এরপরেই মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে তড়িঘড়ি জরুরি বৈঠক শুরু হয় নবান্নে। তিনদিনের মধ্যে ভাটপাড়ায় পুরোপুরি স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনার জন্য পুলিশকে কড়া নির্দেশও দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই এলাকার সমস্ত দুষ্কৃতীদের গ্রেফতারেরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

তারই মধ্যে সংবাদমাধ্যমকে মুকুল রায়ের বক্তব্য, “মুখ্যমন্ত্রীর উস্কানিতেই যাবতীয় গোলমাল হচ্ছে। পায়ের তলা থেকে মাটি সরে যাচ্ছে বুঝতে পেরেই লাগাতার অশান্তি চালাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস। আর তার জেরেই প্রাণ গিয়েছে নিরীহ মানুষের।”

গত একমাস ধরেই টানা অশান্তি চলছে ভাটপাড়া এলাকায়। বোমা-গুলি নিয়ে সমাজবিরোধীদের তাণ্ডব চলছে ভাটপাড়া-কাঁকিনাড়ার বিস্তীর্ণ এলাকায়। এদিন সেটাই মারাত্মক পরিস্থিতি তৈরি করে। গোটা এলাকা কার্যত বনধের চেহারা নিয়েছে। এদিন তৃণমূল নেতা মদন মিত্র বলেন, “সাংসদ অর্জুন সিং-এর নেতৃত্বেই যাবতীয় গোলামলা হচ্ছে। বিভিন্ন জুটমিলের কর্মীদের কাজে লাগানো হচ্ছে। এলাকাকে অশান্ত করতে বিহার, উত্তর প্রদেশ থেকে লোক আনা হয়েছে। রাজ্যের বাকি বিধানসভা এলাকায় কোনও গন্ডগোল নেই, যত গোলমাল শুধু ভাটপাড়ায়। রাজ্যের নামে বদনাম করতে এটা বিজেপির চক্রান্ত।”

ভাটপাড়ার ঘটনা নিয়ে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে নালিশ জানিয়েছে বিজেপি। শুক্রবার এলাকা পরিদর্শনে যাচ্ছে বিজেপির সংসদীয় প্রতিনিধি দল। রাজ্যের নামে বদনাম করাই বিজেপির প্রতিনিধি দল পাঠানোর উদ্দেশ্য বলে দাবি করেছেন মদন মিত্র।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.