প্রহসনের ভোট হলে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে পারে বিজেপি: উমেশ রাই

পঞ্চম দফা অর্থাৎ ৬ মে হাওড়া লোকসভা কেন্দ্রে নির্বাচন৷ আর তার আগেই প্রতি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়োগের দাবি জানাল বিজেপি নেতৃত্ব৷ পাশাপাশি হাওড়া জেলার রিটার্নিং অফিসারের পদ থেকে অবিলম্বে জেলাশাসক চৈতালি চক্রবর্তীকে সরানোর দাবি তোলে তারা৷

মঙ্গলবার দুপুরে এক সাংবাদিক বৈঠকে হাওড়া সদর লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির ইলেকশন ইনচার্জ উমেশ রাই জানান, তাদের আশঙ্কা নির্বাচনের দিন হাওড়ায় অশান্তির আবহ তৈরি করতে পারে শাসক দল। তেমন হলে বিজেপিও এবার পালটা প্রতিরোধে নামতে প্রস্তুত। তবে নির্বাচন যদি এবার অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ না হয় এবং প্রহসনে পরিণত হয় সেক্ষেত্রে প্রয়োজনে বিজেপি নির্বাচন থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

তিনি বলেন, নির্বাচনের দিন আমরা প্রতি বুথে নির্বাচন কমিশনের কাছে কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়োগের দাবি জানিয়েছি। আমাদের আশঙ্কা ভোটের দিন ব্যাপক অশান্তি করতে পারে শাসক দল। সন্ত্রাস হলে আমরাও প্রতিরোধে নামব। জেলাশাসকের স্বামী যেহেতু মুখ্যমন্ত্রীর সচিবালয়ে কর্মরত এবং ২ বছরের ব্যবধানে তিনি ভোট পরিচালনার দায়িত্ব নিতে পারেন না তাই তাঁকে রিটার্নিং অফিসার পদ থেকে সরানোর দাবি জানাচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.