​​সেদিন আনন্দবাজার পত্রিকা এবং হিন্দুস্থান স্ট্যান্ডার্ড কাছাড়ে নিগৃহীতদের সাহায্যে এক মহতি উদ্যোগ গ্রহণ করে। আনন্দবাজার পত্রিকার পক্ষ থেকে শ্রী অশোক কুমার সরকার এবংহিন্দুস্থান স্ট্যান্ডার্ড পত্রিকার পক্ষ থেকে  শ্রী সুধাংশুকুমার বসু এই দুই সম্পাদক জনগণের উদ্যেশ্যে এক প্রচার পত্রে জানালেন         আনন্দবাজার পত্রিকা কাছাড় নিগৃহীত সাহায্য ভান্ডার    এই নামে একটি তহবিল খোলা হইল । আনন্দবাজার পত্রিকার তরফ থেকে এই ভান্ডারে ১০০১ টাকা দান করা হইয়াছে । মানুষের নুন্যতম মৌল অধিকার মাতৃভাষার মর্যাদা প্রতিষ্ঠা প্রয়াসে কাছাড়ের যে সকল বীর সন্তান পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারাইয়াছেন, যাঁহারা নির্মম অত্যাচারে আহত হইয়াছে , তাঁহাদের এবং তাঁহাদের শোকস্তব্ধ পরিবারবর্গকে সাহায্য দান ব্যবস্থার আয়োজনের জন্য আমাদের পাঠকবর্গের নিকট হইতে বহু আবেদন পাইতেছি। কাছাড় শহীদদের আত্মত্যাগ জনচিত্তে গভীর আলোড়ন সৃষ্টি করিয়াছে , সহস্র সহস্র বাঙালি আজ কাছাড়ের নিগৃহীত ভ্রাতাভগ্নিগণকে উদার হস্তে সাহায্য করিতে চাহিতেছেন কাছাড় নিগৃহীত সাহায্য ভান্ডারে দান হিসাবে টাকাকড়ি নিম্নলিখিত ঠিকানায় সাদরে গৃহীত হইবে শ্রী যোগেন্দ্রমোহন সেন, কোষাধ্যক্ষ , কাছাড় নিগৃহীত সাহায্য ভান্ডার , আনন্দবাজার পত্রিকা ভবন, ৬নং সুতরাকিন স্ট্রিট কলিকাতা -১। নিবেদক শ্রী অশোককুমার সরকার, সম্পাদক আনন্দবাজার পত্রিকা ও দেশ শ্রী সুধাংশুকুমার বসু, সম্পাদক, হিন্দুস্তান স্ট্যান্ডার্ড এই ভাবে তাঁরা সাহায্য তুলে ২৮ শে অক্টোবর ১৯৬১তে শিলচরে ‘ মাতৃভাষা শহীদ স্মৃতি ও সাহায্য সমিতির হাতে ৩১,১০৪.৪৯ টাকার একটি ব্যাঙ্ক ড্রাফট তুলে দেয় । উক্ত অনুষ্ঠানে প্রতিনিধি হিসাবে যান শ্রী বিনোদবিহারী বসু। কাছাড় বার লাইব্রেরির পক্ষ থেকে আইনজীবী এই মহৎ উদ্যোগের জন্য দুই পত্রিকা গোষ্ঠীকে ধন্যবাদ জানান কাছাড়বাসীর পক্ষ থেকে। শ্রী রামপ্রসাদ চৌবে, mla , শ্রী সুখময় সিং (মিউনিসিপাল কমিশনার )প্রমুখ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে এই সভায় উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস সভাপতি নন্দকিশোর সিংহ (পদত্যাগী বিধানসভার সদস্য )তিনি এই সভার সভাপতিত্ব করেন।

সৌমেন ভৌমিক

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.