ভোটের দিন উত্তপ্ত কেশপুর নিয়ে ফোনে রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারীকের দফতরে খোঁজ-খবর নিলেন উপ-নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন৷ নয়াদিল্লির কমিশন দফতর থেকে এদিন ফোনে তিনি কেশপুরের পরিস্থিতি জানতে চান৷

রবিবার ষষ্ঠ দফার ভোটে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ঘাটাল লোকসভার কেশপুর৷ বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষকে ঘিরে দফায় দফায় চলে তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের বিক্ষোভ৷ চাঁদখোলাতে ভারতীকে ঘিরে হয় ধাক্কাধাক্কি৷ পড়ে গিয়ে প্রার্থী আহত হন এবং কান্নায় ভেঙে পড়েন৷ এর পাশাপাশি দোগাছিয়াতে ভারতীয় গাড়ি ঘিরে হামলা হয়, চলে ইট-পাথরবৃষ্টি৷ তার দেহরক্ষীর ইটের ঘায়ে মাথা ফাটে৷ কেন্দ্রীয়বাহিনীর জওয়ানদের গাড়িও ভাঙচুর হয়৷ তাকে রক্ষায় শূন্য পাঁচ রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে তাঁর দেহরক্ষীরা৷ আর তাতেই এক তৃণমূল কর্মী, বখতিয়ার খান আহত হন৷ তার চিকিৎসা চলছে৷

পরে কেশপুর কালী মন্দিরে আশ্রয় নেন ভারতী৷ পুলিশ ও কমিশনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন বিজেপি প্রার্থী৷ অন্যদিকে, নির্বাচনী আচরনবিধি না মানায় বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষের বিরুদ্ধে এফআইআরের নির্দেশ দেয় কমিশনের৷ ভোট চলাকালীন তিনি তার সশস্ত্র দেহরক্ষী নিয়ে একটি বুথেপ্রবেশ করেন৷ সেই ঘটনায় কমিশন রিপোর্ট তলব করে৷ শেষে পর্যন্ত বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে এফআইআর এর নির্দেশ দেওয়া হয়৷ কেশপুরের পিকুদার ১৩৯ নম্বর বুথে ঢুকে ভিডিওগ্রাফি করার অভিযোগ রয়েছে গেরুয়া শিবিরের প্রার্থীর বিরুদ্ধে৷ জেলাশাসককে ভারতীর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করতে বলা হয়৷

এই পরিস্থিতিতে সম্পূর্ণ ঘটনা জানতে এদিন রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারীকের দফতরে ফোন করেন উপ-নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন৷ অভিযোগ এলে কেন অবজার্ভাররা ঘটনাস্থলে পৌঁছতে পারচেন না তা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে৷ পুলিশ কী নিরপেক্ষ থেকে কাজ করছে? তার খোঁজ খবর নেন সুদীপ জৈন৷

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.