কলকাতায় ফণী ভয়, পুরনো বাড়ি ফাঁকা করতে নির্দেশ পুরসভার, প্রাণহানী এড়াতে সতর্কতা

কলকাতা-সহ রাজ্যের বড় অংশে ঘূর্ণীঝড় ফণীর প্রভাব পড়ছেই। শুক্র ও শনিবার শহরে প্রবল ঝড়-বৃষ্টির ভয় রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে কলকাতা পুরসভা নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে নাগরিকদের কাছে আর্জি জানাল। এদিন দফায় দফায় পুরকর্তাদের নিয়ে বৈঠক করেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। এর পরে তিনি সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান, সব রকমের ব্যবস্থার জন্য আধিকারিকদের প্রস্তুত থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

পুরসভা বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে যে কোনও পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য তৈরি জানিয়ে মেয়র সাধারণ নাগরিকদেরও সচেতন থাকার আহ্বান জানিয়েছে।

ইতিমধ্যেই পুরসভার পক্ষ থেকে কলকাতা শহরে পুরসভা চিহ্নিত বিপজ্জনক বসতবাড়িতে বসবাসকারীদের অন্যত্র সরে যেতে বলেছে। আগামী ৩ ও ৪ মে ফণীর তাণ্ডব চলতে পারে। এই সময়ে বিপজ্জনক বাড়িগুলিতে বসবাসকারীদের সাময়িক ভাবে অন্যত্র চলে যেতে বলা হয়েছে। এই সময়ে কলকাতা পুরসভার ত্রাণ শিবিরে থাকার ব্যবস্থা হচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে।

ফুটপাথের দোকানদারদেরও সতর্ক করা হয়েছে। সব ভেন্ডার ও হকারদের অস্থায়ী স্টল সাময়িক ভাবে সরিয়ে নিতে বলেছে পুরসভা। একই সঙ্গে পুরসভার পক্ষে জানানো হয়েছে, ঝড়-বৃষ্টির সময়ে কেউ যেন কোনও লাইটপোস্ট, পিলারবক্স এবং ট্রান্সফর্মারে হাত না দেয়।

নির্মীয়মাণ বাড়িগুলিতে ইট, লোহার টুকরো, বাঁশ, টিনের পাত ইত্যাদি সাবধানতার সঙ্গে রাখতে বলা হয়েছে পুরসভার পক্ষ থেকে। ঝড়ের সময়ে এই সব জিনিস উড়ে গিয়ে যাতে কারও প্রাণহানি বা সম্পত্তির ক্ষয় ক্ষতি না ঘটায় তার জন্য আগাম সতর্ক থাকতে বলেছে পুরসভা।

একই সঙ্গে জরুরি সহায়তার জন্য কলকাতা পুরসভা হেল্পলাইন নম্বরও জানিয়ে দিয়েছে। জরুরি কারণে ০৩৩-২২৮৬১২১২, ০৩৩-২২৮৬১৩১৩, ০৩৩-২২৮৬১৪১৪ নম্বরে ফোন করে কলকাতা পুরসভার সাহায্য চাওয়া যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.